বিচ্ছেদের দুঃখ ভুলতেই পর্ন নায়ক !

0
বিবাহ বিচ্ছেদের দুঃখ ভুলতেই নাকি নীল ছবিতে অভিনয় করতেন ম্যানচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিকোলাস গোডাড। নিজেই সে কথা বলেছেন তিনি।
বিষয়টি প্রথমে নজরে আসে ম্যানচেস্টার ইউনিভার্সিটির এক ছাত্রের। নীলছবির সাইট ঘাঁটতে গিয়ে বিষয়টি তার নজরে আসে। প্রথমে বিশ্বাস করতে পারছিলেন না সেই ছাত্র। বিশ্বাস হচ্ছিল না, যে অধ্যাপক তাদের কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং-এর গূঢ় সব তথ্য জলের মতো করে বুঝিয়ে দেন, সেই ব্যক্তির নীলছবি ইন্টারনেটে! অনেকক্ষণ দেখার পরে ওই ছাত্র নিশ্চিত হন, তার ল্যাপটপে যে নীলছবির ইন্টারনেট সাইট খোলা রয়েছে এবং তাতে যাকে দেখা যাচ্ছে, সেই ব্যক্তি তাদের অধ্যাপক নিকোলাস গোডাড।

ওই ছাত্রের দাবি, বিকিনি পরিহিত এক রাশিয়ান অষ্টাদশীর কাছ থেকে বাগানের মধ্যে ম্যাসাজ নিচ্ছিলেন ৬১ বছর বয়সী নিকোলাম। আর বিভিন্নধরনের অশ্লীল শব্দে ওই সুন্দরীকে উত্তেজিত করে তুলছিলেন।  বিষয়টি নিয়ে হইচই হতে বেশি সময় লাগেনি। অধ্যাপক নিকোলাসকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। গোপনে তার বিরুদ্ধে তদন্তও চলছে।
নিকোলাসের প্রাক্তন স্ত্রীও জানিয়েছেন, বিষয়টি সত্য। প্রাক্তন স্বামীকে তিনি ‘যৌন-উন্মাদ’ বলেও সমালোচনা করেছেন। নিকোলাস নিয়মিত বারবণিতাদের কাছেও যেতেন বলে প্রাক্তন স্ত্রী দাবি করেছেন। আর সেজন্যই তিনি বিবাহ-বিচ্ছেদ দিয়েছেন বলে জানান। নিকোলাসের দুই ছেলে-মেয়েও বাবার কীর্তিতে হতবাক। তবে, দুজনেরই দাবি, ১০ বছর ধরে বাবার সঙ্গে সম্পর্ক রাখেন না তারা।
একাধিক বাড়ি। গ্যারেজে কোটি টাকার সব গাড়ি। অর্থ ও খ্যাতির কোনো অভাব নেই অধ্যাপক নিকোলাসের। তা হলে তিনি, হঠাৎ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানজনক কাজের বাইরে নীলছবিতে নাম লেখালেন কেন?
এ ব্যাপারে নিকোলাস বলেন, ‘বিবাহ-বিচ্ছেদের দুঃখ ভুলতেই আমি এ পথ বেছে নিয়েছি। আমি আমার জীবনের বর্তমান সত্যি নিয়ে কোনো লজ্জা বোধ করি না।’
যদিও, নিকোলাসের সহযোগীরা বলছেন বুড়ো বয়সের ভিমরতি! নিকোলাসের নীল জগতের ও অধ্যাপনার সময়ের কিছু ছবি নিয়ে একটি ভিডিও চিত্র বানানো হয়েছে। সেটি পাঠকদের জন্য দেওয়া হলো-
সূত্র http://bd24hour.com/article/1174/

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ