খুনি মালেকের ফাঁসি কার্যকরের দাবীতে আলোচনা সভা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার গোবরাতলা ইউনিয়নের মহিপুর কলেজ মাঠে আলোচিত হত্যাকান্ড কণিকা রানী ঘোষের হত্যাকারী মালেকের ফাঁসি কার্যকরের দাবীতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখা এ সভার আয়োজন করে। গোবরাতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আসজাদুর রহমান মান্নু মিয়ার সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদ্য বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (বিপিএম) প্রাপ্ত চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ সুপার টি.এম মোজাহিদুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিল্পপতি, সমাজসেবক, মিনারএক্সপ্রেস২৪.কমের চেয়ারম্যান ও দৈনিক উপচার পত্রিকার উপদেষ্টা তরিকুল ইসলাম (টি. ইসলাম), চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সৈয়দ শাহজামাল। এসময় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন- খুনি মালেকের সর্বোচ্চ আদালতে ফাঁসির রায় বহাল ও দ্রুত কার্যকর করতে প্রয়োজনীয় ভূমিকা রাখব। তিনি এ এলাকায় মাদক, জঙ্গিবাদ ও বখাটেদের উৎপাত দমনে পুলিশ প্রশাসনকে নজরদারী রাখার পরামর্শ দেন। এছাড়াও এলাকাবাসির প্রতি অপরাধ দমনে পুলিশকে সাহায্য করার আহ্বান জানান। বিশেষ অতিথি টি. ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন- আমি বিগত দিনে নিহতের পরিবার ও আহতদের চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তা দিয়েছি। আগামী দিনেও আহত শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার প্রয়োজনীয় খরচ বহনের আশ্বাস দেন। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মাজহারুল ইসলাম বলেন- এ এলাকায় মাদক নিয়ন্ত্রণে পুলিশ সব সময় তৎপর, শুধু এই ইউনিয়ন থেকেই ১৬টি মাদকের মামলা হয়েছে এবং সব ধরণের অপরাধমূলক কার্মকান্ড নিয়ন্ত্রণে পুলিশের নিয়মিত অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি। আলোচনা সভার আয়োজন এ্যাড. সৈয়দ শাহজামাল ও স্থানীয় বক্তারা ২৭শে-মে কে জাতীয় ঘৃণা দিবস ঘোষণার দাবী করেন। উল্লেখ্য গত ২৭ মে- ২০১৬ তারিখ বখাটে মালেকের অতর্কিত হামলায় নির্মমভাবে নিহত হয় কণিকা রানী ঘোষ ও গুরুতর আহত হয় মরিয়ম, তানজিমা ও তারিন। এঘটনায় পুলিশ দেয়া অভিযোগপত্রের প্রেক্ষিতে ১ ফেব্র“য়ারী-২০১৭ তারিখ চাঁপাইনবাবগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ জিয়াউর রহমান খুনি মালেকের ফাঁসির আদেশ দেন।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment