সিলেটে চোরাবালিতে আটকা পড়ে মৃত চাঁপাইনবাবগঞ্জের মেডিক্যাল ছাত্রের দাফন সম্পন্ন

সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার লালাখালে বেড়াতে গিয়ে চোরাবালিতে আটকা পড়ে নিহত কিশোরগঞ্জের জহরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের দুই শিক্ষার্থীর একজন চাঁপাইনবাবগঞ্জের ইসহাক ইব্রাহিম হোসেন শশী’র (২৫) দাফন বুধবার রাত সাড়ে আটটায় সম্পন্ন হয়েছে।

সে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার রাজারামপুরের বাসিন্দা ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক ইব্রাহিম হোসেনের বড় ছেলে। ইসাহাকের বন্ধুদের বরাত দিয়ে বাবা ইব্রাহিম হোসেন জানান, মঙ্গলবার বিকেল চারটার দিকে সিলেটের জৈন্তাপুরের লালাখালে বেড়াতে যায় ইসহাকসহ তাঁর কয়েকজন সহপাঠী। এসময় ইসহাকের সহপাঠী ঢাকার হুমায়ূন রেজার ছেলে হাসান মোহাম্মদ সাঈদ (২৫) লালাখালের পানিতে হাঁটার সময় প্রথমে চোরাবালিতে আটকা পড়ে।

তাকে বাঁচাতে গিয়ে ইসহাকও চোরাবালিতে আটকা পড়ে। এতে দুজনেই মারা যায়। ইসহাক এমবিবিএস পঞ্চম বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি আরো জানান, ইসহাকের মরদেহ বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের ট্রাক স্ট্যান্ড-কোর্ট পাড়ায় নানা বিশিষ্ট সমাজসেবী জোহরুল ইসলামের বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। পরে রাত সাড়ে আটটায় গ্রামের বাড়ি পৌর এলাকার রাজারামপুরে গোরস্থান চত্ত্বরে জানাজার নামাজ শেষে তাঁকে দাফন করা হয়।

এদিকে ইসহাক ইব্রাহিম হোসেন শশী’র মৃত্যুর খবর মঙ্গলবার রাতে তাঁর সঙ্গে থাকা অনান্য বন্ধুদের মারফৎ বাড়ীতে এসে পৌঁছালে পরিবারে শোকের ছায়া নেমে আসে। খবর পেয়ে রাতেই তাঁর বাড়ীতে ছুটে যান আত্মীয়,বন্ধুসহ বহু মানুষ। তাঁর অকাল মৃত্যুতে চাঁপাইনবাবগঞ্জে গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment