চারদিকে যুদ্ধের প্রস্তুতি-হুঙ্কার, যে কোনো সময় তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু

0

অলনিউজ ডেস্ক: সবদিকে এখন যুদ্ধের হুঙ্কার চলছে।  পরাশক্তিগুলোর প্রায় সবাই যুদ্ধের দিকেই এগিয়ে যাচ্ছে।  এতে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের কালো মেঘ ক্রমেই ঘনাচ্ছে।  উত্তর কোরিয়ার গতিবিধির উপর নজর রাখতে কোরিয়ান পেনিনসুলায় একাধিক ‘চর’ যুদ্ধ জাহাজ পাঠিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

এবার ট্রাম্পের গতিবিধিতে নজর রাখতে আবার ইন্টেলিজেন্স গ্যাদারিং ভেহিক্যালস বা চর জাহাজ পাঠালো চীন ও রাশিয়া।  ফলে যে কোনো সময় যুদ্ধ লেগে যেতে পারে বলে আশঙ্কা আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকদের।

সম্প্রতি উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উনের লাগাতার অস্ত্র পরীক্ষা ও সামরিক গতিবিধির উপর নজরদারি চালাতে কোরিয়ান পেনিনসুলায় ১০০টি যুদ্ধবিমান-সহ ইউএসএস কার্ল ভিনসন এয়ারক্রাফ্ট ক্যারিয়ার, ডেস্ট্রয়ার, একটি ক্রুজার ও একটি সাবমেরিন পাঠিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

জাপানের সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই পদক্ষেপের পরই নড়েচড়ে বসে চীন ও রাশিয়া।  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গতিবিধির উপর নজর রাখতে কোরিয়ান পেনিনসুলায় চর বৃত্তি শুরু করে দিয়েছে চীন ও রাশিয়াও।

উত্তর কোরিয়ার উপর হামলা চালানোর তোড়জোড় শুরু করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।  মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের কথাতেই তা স্পষ্ট।  তিনি বলেছেন, ‘পিয়ংইয়ং নিয়ে ধৈর্যের সীমা পেরিয়ে গেছে’।  এরপরই ওয়াশিংটনকে রাশিয়া হুঁশিয়ারি দেয়, কোনো রকম হামলা যেন তারা না চালায়।  রাশিয়ার বক্তব্য, পিয়ংইয়ংয়ের বারবার পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা করা যেমন ঠিক নয়, তেমনই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রও আন্তর্জাতিক নিয়ম লঙ্ঘন করতে পারে না।

আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষক মহলের মতে, গত দু’দশক ধরে সিরিয়া ও আফগানিস্তানে শান্তি ফেরানোর নামে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যে স্ট্র্যাটেজি নিয়েছে, সেই একই স্ট্র্যাটেজি উত্তর কোরিয়ার ক্ষেত্রে নিতে চাইছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।  উত্তর কোরিয়ার ক্ষেত্রে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্র্যাটেজি রুখতে আগেভাগেই কোমর বেঁধে নেমে পড়েছে চীন ও রাশিয়া।  ফলে কোরিয়ান পেনিনসুলায় তৈরি হয়েছে যুদ্ধের আবহ ।  ফলে যে কোনো সময় যুদ্ধ লেগে যেতে পারে বলে ধারণা করা যাচ্ছে।

http://bd24report.com

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ