শাকিব খানকে উকিল নোটিশ, মামলার প্রস্তুতি

অলনিউজ ডেস্ক: ২০০৬ সালে ‘কোটি টাকার কাবিন’ ছবিটি দিয়ে লাইম লাইটে চলে আসেন চলচিত্রের জনপ্রিয় তারকা হিসেবে খ্যাতি পাওয়া শাকিব খান। এই ছবির অভাবনীয় সাফল্যের পর ঢালিউডে চলতে থাকে তার একচ্ছত্র আধিপত্য।

সম্প্রতি তার গোপন বিয়ে আর সন্তানের খবর ফাঁস হলে তার ক্যারিয়ার কিছুটা হুমকির মুখে পড়ে। এ নিয়ে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিলো মিডিয়া জগৎ সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম। পুরো বিষয়টা নিয়ে জনমনে এক ধরনের রহস্যের সৃষ্টি হয়েছিল।

এমন সময় বাংলাদেশের একটি জাতীয় দৈনিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে চলচ্চিত্র পরিচালকদের হেয় করায় শাকিব খানকে উকিল নোটিশ পাঠিয়েছে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি। তার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতির কথাও জানিয়েছেন সমিতির নেতারা।

গতকাল বুধবার শাকিবের গুলশানের বাসার ঠিকানায় উকিল নোটিশ পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন।

জানা যায়, গত ১৬ এপ্রিল একটি জাতীয় দৈনিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারের এক প্রশ্নের উত্তরে শাকিব বলেন ‘এখন যেহেতু বেশি সিনেমা হচ্ছে না, তাই বেকার লোকের সংখ্যাও একটু বেশি। পরিচালক সমিতির তালিকা দেখবেন, অনেক পরিচালক। তাঁরা এফডিসিতে আড্ডাও মারছেন। কিন্তু কাজ করছেন কতজন? প্রযোজকের ক্ষেত্রেও দেখবেন একই অবস্থা। শিল্পীদের ক্ষেত্রেও তা-ই। অনেক শিল্পী তো নিবন্ধিত আছেন, কাজ করছেন কতজন? শত শত লোকের দিকে না তাকিয়ে দেখতে হবে, এই শিল্পের ভালো লোকেরা কী বলছেন। সফল মানুষেরা কী বলছেন। আজকে ৬০০ শিল্পী কী বললেন, তাতে আমার কিছু যায়-আসে না। কিন্তু রাজ্জাক, আলমগীর, ফারুক, সোহেল রানা, ববিতা, কবরী, শাবানা যখন কথা বলবেন, তখন তাঁদের বিষয়টা গ্রহণযোগ্য। আমার কাছে মনে হয়, এই দেশে এক নম্বর হওয়াটা একটা যন্ত্রণার ব্যাপার। এক দিন বা দুই দিনের জন্য হলে ঠিক আছে, কিন্তু দীর্ঘদিন প্রথম স্থান ধরে রাখলে তখন শত্রুর অভাব হয় না। ব্যাপার না, আমাদের নাম–বদনাম দুই-ই নিয়ে চলতে হবে।’

তার এই বক্তব্যের মাধ্যমে শাকিব খান চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক আর শিল্পীদের হেয় করে কথা বলেছেন বলে দাবি সমিতির। তারা শাকিবের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তার আগে এ উকিল নোটিশ পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন তারা।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment