পরকীয়া প্রেমের ফাঁদে ফেলে ধর্ষন

পরকীয়া প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ও এক গৃহ বধুকে রাতের অন্ধকারে ধর্ষনের পর গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার পাকা ইউনিয়নের বাবুপুর গ্রামে। গত ২০ এপ্রিল শিবগঞ্জ থানায় দায়ের ঐ গৃহবধুর স্বাক্ষর করা একটি অভিযোগ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, পাঁকা ইউনিয়নের বাবুপুর গ্রামের তাজিবুলের ছেলে আব্দুল করিম(২৬) প্রথমে পরকীয়া প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একই এলাকার জনৈক ব্যক্তির স্ত্রীকে গত ১৯ এপ্রিল রাত ১১ টার দিকে করিমের বন্ধু ও একই গ্রামের দুরুল ইসলামের ছেলে ডালিম(৩০) ও জবেদের ছেলে সৈবুর(৩২)-এর সহযোগিতায় ঐ গৃহবধূকে তার স্বামীর ঘর থেকে বের করে পার্শবর্তী আম বাগানে ধর্ষণের পর বিয়ের প্রলোভন দিয়ে তাদের বাড়ি নিয়ে যায়। এসময় করিমের পিতা তাজিবুল হক(৬০), ভাই রহিম(৩০), মাতা মোসতারা বেগম(৫৫) ঐ গৃহ বধূর  হাত পা বেঁধে মুখে গামছা ভরে কয়েকঘন্টা ধরে শারীরিক ভাবে অমানবিক নির্যাতন চালিয়ে রাত ৩ টার দিকে গোপনে তার স্বামীর বাড়িতে ফেলে যায়। পরে তার স্বামীসহ অন্যান্যরা তাকে উদ্ধার করে তার বাবার বাড়ীতে রেখে চলে যায়। এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাবিবুল ইসলাম হাবিব জানান, এ ঘটনায় জড়িত আসামীদের খুব শিঘ্রই গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

http://www.times24.net/Other/38799/—-

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related posts

Leave a Reply