শিবগঞ্জ অপারেশন ‘ঈগল হান্টে’ ৪ জঙ্গি নিহত

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানায় অপারেশর ঈগল হান্ট সমাপ্ত হয়েছে। বিকেলে অভিযান শেষ হওয়ার পর ওই বাড়িতে চার জঙ্গির মরদেহ থাকার কথা জানিয়েছে পুলিশ। এর মধ্যে ওই বাড়ির ভাড়াটিয়া আবু রয়েছেন। নিহত চারজনই পুরুষ।

২৭ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বিকেলে এক নারী ও শিশুকে আলাদাভাবে বের করে আনার ঘণ্টা খানেক পর অভিযান শেষ হওয়ার কথা জানায় পুলিশ।

সন্ধ্যায় অভিযান শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান পুলিশের রাজশাহী বিভাগের ডিআইজি খুরশীদ হোসেন।

এর আগে পুলিশের সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে ওই নারী আবুর স্ত্রী সুমাইয়া। তার পায়ে গুলি লেগেছে। এছাড়া আহত শিশুটি নূরী(০৭) না সুরাইয়া(০৫) তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আহত অবস্থায় দুজনকেই চাঁপাইনবাগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

উপজেলার শিবনগর-ত্রিমোহনীগ্রামে আমবাগান ঘেরা ওই একতলা ওই বাড়িতে মাস তিনেক ধরে আবু (৩০) নামের এক ব্যক্তি এবং তার স্ত্রী-সন্তানসহ চারজন থাকতেন বলে ধারণা পুলিশের।

বুধবার বিকেল থেকে ওই বাড়িতে অভিযান শুরুর পর বৃহস্পতিবার সকাল থেকে জঙ্গিদের আত্মসমর্পনের আহবান জানানো হয়। পরে বাড়ির সামনে পড়ে থাকা একটি বোমার নিষ্ক্রিয় করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

‘অপারেশন ঈগল হান্ট’ নামে পরিচালিত এই অভিযানে স্থানীয় র‌্যাব পুলিশের সঙ্গে অংশ নেয় ঢাকা থেকে যাওয়া কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সোয়াত টিমের সদস্যরা।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment