কোন বিষয়গুলি আপনার যৌবন কেড়ে নেয়

নিয়মিত যত্ন ছাড়াও নিজের লাবণ্য ধরে রাখতে কে না চায়। বিশেষ করে আজকাল বয়স ত্রিশের কোটা পার হতে না হতেই চেহারায় ও শরীরে বয়সের ছাপ পড়তে দেখা যায় অনেকেরই। মুখের চামড়া ঝুলে পড়া কিংবা মুখে বয়স জনিত মেচেদা, দাগ ও রিংকেল দেখা যায়। বিরূপ আবহাওয়ার পাশাপাশি এই অল্প বয়সে চেহারা বুড়িয়ে যাবার জন্য দায়ী আমাদেরই কিছু অভ্যাস। বলা চলে রীতিমত বদ অভ্যাস। এই খারাপ অভ্যাসগুলো আমাদের ভেতরটার সাথে সাথে বাইরের সৌন্দর্যও কেড়ে নিচ্ছে। আপনার শরীরকে কেবল বুড়িয়ে দিচ্ছে না, নষ্ট করে দিচ্ছে আপনার চেহারার সৌন্দর্যকেও। বয়সের চাইতেও তাই অনেক বেশি বয়স্ক দেখাচ্ছে আপনাকে। অথচ সামান্য এই ভুল গুলো শুধরে নিলেই কোনো রকম বাড়তি যত্ন ছাড়াই আপনার শরীর ও চেহারার যৌবন থাকবে অটুট।

কম ঘুমানো
ব্যস্ততা কিংবা অন্যান্য অনেক কারণেই আমাদের ঘুম পরিমিত পরিমাণে হয় না। একজন পূর্ণ বয়স্ক মানুষের দিনে সাত-আট ঘণ্টা ঘুমের প্রয়োজন। পরিমিত না ঘুমানোর জন্য দেহে অন্যান্য রোগের পাশাপাশি ত্বকেও দেখা যায় বয়সের ছাপ পড়তে। ডার্ক সার্কেল ও চোখের নিচের ফোলা ভাবের জন্য দায়ী পর্যাপ্ত ঘুম না হওয়া। শুধু তাই নয় অপর্যাপ্ত ঘুমের কারনে দ্রুত মুখের চামড়া ঝুলে পড়তে দেখা যায়। আর হাজারো বাড়তি অসুখ বিশুখ তো সাথে আছেই বোনাস হিসাবে!

বেশি পরিমাণে মিষ্টি খাবার খাওয়া
বেশি পরিমাণে মিষ্টি খাবার খাওয়া শুধুমাত্র ওজনই বাড়ায় না, ত্বকেরও অনেক ক্ষতি করে। অতিরিক্ত মিষ্টি খেলে ত্বকের কোলাজেন টিস্যুর ক্ষতি হয়, ফলে ত্বকে রিংকেল দেখা যায়। এদিকে আপনার ওজন বাড়ায়, শরীরের জন্ম দেয় নানান রকম রোগ,খুব কম বয়সেই রীতিমত বার্ধক্য নিয়ে আসে শরীরে। সুতরাং মিষ্টি খাবার খাওয়া থেকে সাবধান।

ধূমপান ও মদ্যপান
ধূমপান ও মদ্যপানের ফলে শরীরের কি ক্ষতি হয় সেটা নতুন করে বলার প্রয়োজন নেই। একই সাথে চেহারারও ক্ষতি হয় ভীষণ। ত্বকের নিচের শিরা-উপশিরায় রক্ত সঞ্চালনের মাত্রা অতিরিক্ত পরিমাণে বেড়ে যায়। এতে ত্বকের নিচের শিরা-উপশিরা স্থায়ীভাবে ক্ষতি গ্রস্থ হয়। ফলে ত্বকে বিভিন্ন ধরনের বয়সজনিত দাগ দেখা দেয়।

অতিরিক্ত ব্যায়াম
ব্যায়াম করা স্বাস্থ্যের জন্য অনেক ভাল। কিন্তু অতিরিক্ত কোনো কিছুই ঠিক নয়। আপনি যদি ভাবেন যে বেশি ব্যায়াম করলে শরীর সুগঠিত হবে তা হয়তো ঠিক। তবে এটাও ঠিক যে বেশি কায়িক পরিশ্রমও শরীর ও চেহারা থেকে কেড়ে নেয় যৌবন। এর পাশাপাশি ত্বকের যৌবনও হারাচ্ছেন। অতিরিক্ত ব্যায়ামের ফলে ত্বকের কোলাজেন টিস্যু ভেঙে যায়। এর ফলে ত্বকে রিংকেল দেখা দেয়। ত্বক বুড়িয়ে যায়।

সানস্ক্রিন ব্যবহার না করা
অনেকেই রোদের পোড়াকে তেমন গুরুত্ব দেন না। আবার অনেকেই ভুলে কিংবা আলসেমি করে সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন না। কিন্তু এতে আপনি আপনার নিজেরই ক্ষতি করে চলেছেন। সূর্যের রশ্মির তেজ আপনার চেহারায় দ্রুত বয়সের ছাপ ফেলে। মেচেদা, দাগ, রিংকেল ও চামড়া ঝুলে পড়ার মত ক্ষতি করে রোদ। তাই প্রতিদিন সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment