দাঁতের ‘ব্যথা’ মেটাবে বেসুর নয়া আবিষ্কার

 এবার আধুনিক পদ্ধতিতে হবে দাঁতের চিকিৎসা।  রোগীর মাড়ির হারের ক্ষমতা মেপে বসানো হবে দাঁত।  নতুন পদ্ধতিতে অনেক বেশি সুরক্ষিত হবে আপনার ইমপ্ল্যান্ট করা দাঁতের ভবিষ্যৎ।  নয়া পদ্ধতিতে বাড়বে না খরচও। বেসুর অধ্যাপক অমিত রায়চৌধুরীর নয়া পরীক্ষা আগামী এক বছরের মধ্যেই সাধারন মানুষের জন্য ফলপ্রসূ হবে।

দাঁত, মুখ মন্ডলেরর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অস্থি।  দাঁতবিহীন মুখমণ্ডলের পূর্ণতা প্রাপ্তি হয় না।  এই দাঁতেরই চিকিৎসায় নয়া পদ্ধতি নিয়ে আসছে শিবপুর বি.ই কলেজ বা বেসু।  নয়া পদ্ধতিতে নতুন দাঁত বসানো হলে তা ওই ব্যক্তির পক্ষে অনেক সুবিধাজনক হবে।  হবে অনেক বেশি সুরক্ষিতও। নতুন দাঁত বসানোর পর তা ফের ক্ষয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা একদমই থাকবে না বলে আশ্বাস দিয়েছেন অধ্যাপক অমিত রায়চৌধুরী।  নয়া এই পদ্ধতির নাম “পেসেন্ট স্পেসিফিক ডেন্টাল ইমপ্ল্যান্ট ডিজাইনিং”।

অমিত রায়চৌধুরী জানিয়েছেন, “এতদিন স্রেফ রোগীর প্রয়োজনীয় দাঁতের মাপ আন্দাজ করে দাঁত বসিয়ে দেওয়া হত।  এবার সেই পদ্ধতিতেই পরিবর্তন আনার চেষ্টা করছি।  অনেক বেশি রোগীভিত্তিক হবে নতুন পরীক্ষা।” অমিত রায়চৌধুরীর কথায়, “এর ফলে অনেক সময়েই নতুন দাঁত বসানোর পরে তা খুলে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকত।  অনেকক্ষেত্রে কিছুটা অস্বস্তির মধ্যেও থাকতেন রোগীরা।  এই সমস্ত সমস্যাই এবার মিটবে।”সূত্র: কলকাতা24×7

Please follow and like us:

Related posts