‘সেক্স অ্যাপিলই একজন মেয়ের শেষ কথা!’ বিতর্কে এই শর্টফিল্ম

মুম্বই: নির্মাতা রাম গোপাল ভার্মার পরিচালনায় প্রথম শর্ট ফিল্ম মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই আলোচনার শীর্ষে পুরো গল্পটি ৷ “মেরি বেটি সানি লিওন বননা চাতি হ্যায়” ছবিটিকে নিয়েই আবহাওয়া গরম এখন বলিপাড়া থেকে সোশ্যাল মিডিয়া ৷ শোনা যাচ্ছে, ছবিটি দেখার পর দর্শকদের মনেও পড়েছে খুব খারাপ প্রভাব। জেনে নেওয়া যাক কি এমন ট্যুইস্ট রয়েছে এই শর্টফিল্মে৷

পর্ন স্টার সানি লিওনের যৌন অ্যাপিলকে কেন্দ্র করেই পুরোপুরি আধুনিক চিন্তাভাবনায় পরিচালক রাম গোপাল ভার্মা ছবিটি তৈরি করেছেন ৷ ভারতীয় সাধারণ নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের একটি মেয়েকে কেন্দ্র করে গোটা গল্পটি ৷ সে তার সৌন্দর্য্যকে এবং তার যৌনতাকেই কাজে লাগিয়ে জীবনে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার আর্জি জানায় তার বাবা ও মা কে ৷

এরপরই শুরু আসল ট্যুইস্ট ৷ ১১ মিনিটের শর্টফিল্মের মধ্যে রয়েছে টান টান উত্তেজনা ৷ মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়েটির স্বপ্ন পর্ণ স্টার হওয়া। আর তা নিয়েই তার বাবা মার সঙ্গে বচসা হয় ৷ কিন্তু মেয়েটি কোনোমতেই তার চিন্তা ভাবনা ভুল বলে মানতে নারাজ ৷ তার মতে সকল পেশার মতোই একজন পর্ন স্টারের পেশাও সমান ৷

সুতরাং যার যেমন দৃষ্টিভঙ্গি , সে ঠিক সেই ভাবেই তার জীবিকাকে নিতে পারে ৷ তবে এই ধরনের চিন্তাধারার ঘোর বিরোধী দর্শক মহল ৷ কারণ একজন নারী মানেই সে কারোর মা, কারোর ঘরের স্ত্রী, বোন, কন্যা আরও বিভিন্ন পরিচয় আছে তার ৷ সুতরাং এধরনের চিন্তা ভাবনার প্রকাশ মানে নারী জাতীর শালীনতাকে আঘাত করার সমান বলে মনে করছেন দর্শকেরা ৷ এখন অপেক্ষা একটাই, আর কতো জল ঘোলা হবে এই চলচ্চিত্রটিকে ঘিরে সেটিই দেখার বিষয় ৷
সূত্র: কলকাতা24×7

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment