সকালে মিলন বড়ই মধুর

0

সারাদিনের মানসিক চাপের প্রভাবে রাতে যৌনমিলনের মন-মানসিকতা নাও থাকতে পারে। এক্ষেত্রে উপযুক্ত সময় হতে পারে ভোর বেলা।

যৌনমিলন যে স্বাস্থ্যের জন্য উপকারি তা বলার অপেক্ষা রাখে না। এটি হৃদস্পন্দনের গতি বৃদ্ধি করে অত্যন্ত তৃপ্তিমূলক উপায়ে। স্বাস্থ্যবিষয়ক এক ওয়েবসাইট জানিয়েছে সকালে যৌনমিলনের বেশ কয়েকটি উপকারি দিক।

– প্রথমত, সকালে ক্লান্তিভাব থাকে না। মাত্র ঘুম থেকে ওঠার কারণে মাথা ঝিমঝিম ভাব থাকতে পারে। সেক্ষেত্রে আরামদায়ক এবং সহজ ‘সেক্স পজিশন’গুলো বেছে নিতে হবে। ফলে দিনের শুরুটাও সুন্দর হবে।

– সকালের সঙ্গম বিবাহিত দম্পতিদের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বাড়ায়। পাশাপাশি এসময় শারীরিক ও মানসিকভাবে উভয়ই সতেজ থাকে। ফলে শরীরে ঘামের দুর্ঘন্ধ, বাইরের ধুলাবালি থাকার সম্ভাবনা নেই, নেই মানসিক চাপও। আর সঙ্গম শেষে পরস্পরকে জড়িয়ে ধরে শুয়ে থাকার ফলে তৃপ্তি বাড়িয়ে দেবে বহুগুণ।

– সকালে যৌনমিলনের কারণে শরীরে ‘অক্সিটোসিন’ নামক হরমোন নিঃসৃত হয় যা আপনাকে উষ্ণতার স্পর্শ দেয়। অর্থাৎ সঙ্গমের পর সুখকর অনুভূতির রয়েছে বৈজ্ঞানিক ভিত্তি।

– সকালের যৌনমিলন শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বৃদ্ধি করে। এটি শরীরের ‘আইজিএ’ নামক একটি ‘অ্যান্টিবডি’কে সক্রিয় করে যা আমাদের বিভিন্ন রোগবালাই থেকে রক্ষা করে।

– এছাড়া সকালে পুরুষের ক্ষমতা এবং টেস্টোস্টেরনের মাত্রা থাকে সর্বোচ্চ। তাই এসময় পুরুষের স্থায়িত্ব বেশি হয়। পাশাপাশি, সঙ্গমের তৃপ্তি থেকে আপনার পুরুষ সঙ্গী বাসার খুঁটিনাটি কাজগুলো করে দিতে পারে।

তাই এলার্ম ঘড়িকে বিদায় জানান। আর সঙ্গীর সঙ্গে মিলনের জন্য উৎসুক হয়ে ঘুম থেকে উঠুন। শুভ হোক আপনাদের সকাল।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ