অভিনব কৌশলে তরুণীকে পালাক্রমে ধর্ষণ!

ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক তরুণী (১৮)। গত শুক্রবার রাতে সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে বাদাঘাট উওর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত হলেন- মোটরসাইকেল চালকের জাহাঙ্গীর (১৯)। সে উপজেলার বাদাঘাট উত্তর ইউনিয়নের উওর মোকশেদপুরের শাহজাহান মিয়ার ছেলে। অপর অভিযুক্ত একইগ্রামের শাহিন উদ্দিনের ছেলে জাকির (১৯)।

গত শুক্রবার দুপুরে লাউড়েরগড় এলাকায় হযরত শাহ আরেফিন (রহ.) এর আস্থানা জিয়ারত করতে আসেন ওই তরুণী। বিকালের দিকে তাকে বাড়িতে পৌঁছে দেয়ার কথা বলে মোটরসাইকেলে তোলে জাহাঙ্গীর। কিছুদুর চালিয়ে আসার পর মুঠোফোনে জাকিরকে ডেকে নেয় জাহাঙ্গীর।

এরপর সন্ধ্যার পর তারা কৌশলে ওই তরুণীকে ভুল পথে নিয়ে যায়। সেখানে চাঁন মিয়া নামের এক পাথর শ্রমিকের পতিত ঘরে নিয়ে আটকে রেখে তরুণীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

রাত দেড়টার দিকে ওই বাড়িটির পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় তরুণীর চিৎকারে শুনে তাকে উদ্ধার করে গ্রামবাসীরা।

গ্রামবাসীর উপস্থিতি টের পেয়ে ঘরের বেড়া ভেঙ্গে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। তাহিরপুর থানার বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই তপন কুমার দাস জানান, খবর পেয়ে শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ভিকটিমকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

এ ব্যাপারে তাহিরপুর থানার ওসি শ্রী নন্দন কান্তি ধর বললেন, ভিকটিমের নিকট থেকে ঘটনা সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।                                                               বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment