স্ত্রীর কাছে নগ্ন অবস্থায় ধরা খেল স্বামী ও তার প্রেমিকা, অতঃপর… (ভিডিও)

 চুরি বিদ্যা বড় বিদ্যা যদি না পড়ে ধরা। চলতি এ প্রবাদকেই একটু ভেঙে নিয়ে বলা যায়, পরকীয়া বড় ক্রিয়া যদি না পড় ধরা। আর যদি ধরা পড়ে তাহলে তার পরিণাম কী যে ভয়াবহ হতে পারে তারই সাক্ষী থাকলেন চীনের এক ব্যক্তি ও তার প্রেমিকা।

চুরি বিদ্যা বড় বিদ্যা যদি না পড়ে ধরা। চলতি এ প্রবাদকেই একটু ভেঙে নিয়ে বলা যায়, পরকীয়া বড় ক্রিয়া যদি না পড় ধরা। আর যদি ধরা পড়ে তাহলে তার পরিণাম কী যে ভয়াবহ হতে পারে তারই সাক্ষী থাকলেন চীনের এক ব্যক্তি ও তার প্রেমিকা।

সম্প্রতি একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে দেখা যাচ্ছে, নগ্ন অবস্থায় কোনওভাবে বাঁচার চেষ্টা করছেন এক ব্যক্তি। আর তাকে বেধড়ক মারধর করছেন এক নারী। ওই অবস্থাতেই আরও এক নারীকে বাঁচানোর চেষ্টাও করছেন ওই ব্যক্তি।

জানা যায়, বেশ কিছুদিন ধরেই পরকীয়ায় লিপ্ত ছিলেন ওই ব্যক্তি। আঁচ করেও মুখে কিছু বলেননি স্ত্রী। বরং হাতেনাতে পাকড়াও করার জন্য ছিলেন সুযোগের অপেক্ষায়। সুযোগ আসতেই ঝাঁপিয়ে পড়েন তিনি। সম্ভবত স্বামীর উপর নজরদারির জন্য বেশ কিছু বন্ধুবান্ধবদের রেখেছিলেন ওই নারী। তাদের মারফতই জানতে পারেন যে, প্রেমিকাকে নিয়ে ওই ব্যক্তি হোটেলে গিয়ে উঠেছেন। তার কিছুক্ষণের মধ্যেই বন্ধুবান্ধবদের নিয়েই হোটেলের ঘরে ঢুকে পড়েন ওই মহিলা। স্বামীকে দেখতে পান নগ্ন অবস্থায়। পাশেই দেখা যায় তার প্রেমিকাকে। এরপর আর কোনও বাধা মানেননি ওই নারী। চড়াও হন স্বামীর উপর। বেধড়ক মারধর করেন তাকে।

ভিডিওটি ইতিমধ্যে দেখেছেন এক কোটিরও বেশি মানুষ। ওই মহিলার কোনও বান্ধবী, যিনি সে সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন, তিনিই পুরো ঘটনাটি ক্যামেরবন্দি করে ছড়িয়ে দেন। সম্ভবত ওই ব্যক্তি বন্ধুবান্ধবদের কাছেও মিথ্যাচার করে চলেছিলেন। আর তাই সকলের সামনেই তার মুখোশ খুলে দিতেই এই কাণ্ড করেন তাঁ স্ত্রী।

ভিডিওটিতে ওই ব্যক্তিকে নির্লজ্জ বলেও গালিগালাজ করেন তারা। যদিও বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক চীনে শাস্তিযোগ্য অপরাধ নয়। তবু বিশ্বাস যারা ভাঙছেন তাদেরকে শাস্তি দেওয়ার ব্যবস্থা নিজেরাই করে নিচ্ছেন সঙ্গীরা। এ ভিডিও আরও একবার সেই ঘটনা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল।

Please follow and like us:

Related posts