মিষ্টিজাতীয় খাবার খাইয়ে মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ

নেত্রকোণার আটপাড়ায় এক মাদ্রাসাছাত্রীকে অজ্ঞান করে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক তরুণের বিরুদ্ধে।

গতকাল সোমবার বিকাল সোয়া চারটার দিকে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে। আটক তরুণ উপজেলার টেংগা গ্রামের মো. সঞ্জু মিয়ার ছেলে জামাল উদ্দিন।

আটপাড়া থানার উপপুলিশ পরিদর্শক (এসআই) মো. মিজানুর রহমান জানান, ১৩ বছরের ছাত্রীটির বাবা ও মা বাড়িতে ছিলেন না। এই সুযোগে গত রবিবার মধ্যরাতের দিকে গ্রামের জামাল উদ্দিন কিশোরীটির বাড়িতে যায়। বাড়িতে থাকা কিশোরীটির ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধ দাদা ও ১০ বছরের ছোটভাই এবং কিশোরীটিকে মিষ্টিজাতীয় খাদ্যের (খাজা) সঙ্গে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে দেয়। কিছু সময়ের মধ্যে সবাই ঘুমে ঢলে পড়ে। এ সময় কিশোরীটিকে ধর্ষণ করে জামাল।

এসআই আরও জানান, সোমবার বিকাল সোয়া তিনটার দিকে খবর পেয়ে কিশোরীটিকে উদ্ধার করে আটপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্যে ছাত্রীটিকে নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে থানায় মামলা হচ্ছে বলেও জানান এসআই।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment