রাজশাহীতে এবার মিলল ১২৫ গোখরা

রাজশাহীতে এবার পাওয়া গেল ১২৫টি গোখরা সাপের বাচ্চা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জেলার তানোর পৌর এলাকার ভদ্রখণ্ড মহল্লার কৃষক আক্কাছ আলীর রান্নাঘর থেকে মিলছে এসব সাপ। তবে স্থানীয়দের সহায়তায় একে একে সবগুলোই মেরে ফেলা হয়েছে।

গৃহকর্তা আক্কাছ আলী জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর তার স্ত্রী হাসনা বিবি রান্নাঘরে গিয়েছিলেন। ওই সময় তিনি ঘরের মেঝেতে তিনটি গোখরা সাপের বাচ্চা দেখে চিৎকার দেন। খবর পেয়ে একে একে এগিয়ে যান তিনি, তার দুই ছেলে হাসিবুর রহমান ও আজিবুর রহমান। তারা তিনজনে মেরে ফেলেন সাপগুলো।

এরপর রান্নাঘরের কোণায় থাকা গর্ত থেকে একে একে বের হতে থাকে আরও সাপ। সেগুলোও মেরে ফেলেন তারা। এক পর্যায়ে প্রতিবেশীরাও তাদের সঙ্গে যোগ দেন। সবমিলিয়ে তারা ১২৫টি সাপ মারেন। পরে গর্ত খুঁড়ে বের করেন আরও ১৩টি সাপের ডিম।

আক্কাছ আলীর ভাষ্য, সাপগুলো দৈর্ঘ্যে এক থেকে দেড় ফুটের মতো। কিছু কিছু আরও ছোট। কেবলই ডিম থেকে বেরিয়েছে। তারা মা সাপটিতে গর্ত থেকে পালিয়ে যেতে দেখেছেন। পুরনো মাটির বাড়ি হওয়ায় ইঁদুরের গর্তে ডিম দিয়ে বাচ্চা ফুটিয়েছে গোখরা। বাচ্চাগুলোর বাপ-মা মারা না পড়ায় এখন তার পরিবার আতঙ্কে। ভয়ে ছেলেমেয়েরা বাড়িতেই থাকতে চাইছে বলে জানান আক্কাছ আলী।

ওই মহল্লার কলেজছাত্র আল আমিন জানান, সন্ধ্যায় চেঁচামেচি পেয়ে তারা দৌড়ে যান ওই বাড়িতে। তার পর যা দেখেন তাতে চক্ষু ছানাবড়া। গিয়ে দেখেন, ১২৫টি বাচ্চা সাপ মেরে ডালিতে রেখেছেন গৃহকর্তা। তিনি সেগুলোর মুঠোফোনে ছবি তোলেন। এ ঘটনা তাদের কাছে অবিশ্বাস্য মনে হয়েছে।

ঘটনার পর থেকে আক্কাছ আলীল বাড়িতে সাপ দেখতে ভিড় জমাচ্ছেন এলাকাবাসী।

এর আগে, মঙ্গলবার রাত ১১টার পর থেকে রাজশাহী নগরীর বুধপাড়া মহল্লায় গৃহকর্তা মাজদার আলীর বাড়িতে একে একে মারা পড়ে ২৭টি গোখরা। বৃহস্পতিবার মারা পড়ে আরও একটি। এগুলোও বাচ্চা সাপ। প্রতিটির দৈর্ঘ্য আড়াই ফুটের মতো।এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়।                                                                                                                        

সূত্রঃজাগোনিউজ২৪.কম

 
Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment