চাঁপাইনবাবগঞ্জে ইউএনও কর্তৃক পুকুরের মাছ মেরে নেয়ার অভিযোগ

টুটুল রবিউল: চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বিরুদ্ধে জোর পূর্বক বিরোধপূর্ণ পুকুর হতে জোরপূর্বক মাছ মেরে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগকারী ভোলাহাট উপজেলার গোহালবাড়ি ইউনিয়নের সুরানপুর গ্রামের আব্দুল মালেক বলেন- গত ১ জুলাই শনিবার ইউএনও ফিরোজ হাসান, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা কামরুজ্জামান সর্দারসহ ইউপি চেয়ারম্যান কাদির ও মহিলা মেম্বার রেনুকে নিয়ে প্রায় ১৫ জনের একটি দল নিয়ে আর এস ২১৪৩ দাগের পুকুর হতে আনুমানিক ২ লক্ষ ৩০ হাজার টাকার মাছ মেরে নিয়ে যান। আব্দুল মালেক আরও বলেন-জেএল নং-৬, খতিয়ান নং আরএস ৬৫২, আরএস ২১৪৩ ও ২১৪৪ দাগের সুরানপুর পুকুরটি প্রায় ৬০ বছর ধরে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগদখল করে আসছি। গত ১৬-০৭-১৯৯২ ইং তারিখে গোহালবাড়ি ইউনিয়ন ভুমি অফিসে উক্ত খতিয়ানভুক্ত সম্পত্তির খাজনা দাখিল করে চেক গ্রহণ করে। পরবর্তীতে সরকার পক্ষ পুকুরটি সরকারী দাবি করে ২০০৬ সালে মামলা দায়ের করে এবং মামলায় সরকারপক্ষ জিতে যায়। পরবর্তীতে তিনি হাইকোর্টে রিভিউ করলে মহামান্য হাইকোর্ট উক্ত পুকুরে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। মহামান্য হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইউএনও ফিরোজ হাসান আমার অজ্ঞাতে সুরানপুর পুকুর হতে মাছ মেরে নিয়ে যান। তিনি আরও বলেন গত ১৭-০৭-২০১৭ তারিখে ”রেকর্ডীয় প্রজার খাজনার চেক দাখিলার আদেশ” চেয়ে জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করা হয়েছে। ইউএনও ফিরোজ হাসান কর্তৃক মাছ মেরে নেয়ার বিচার চেয়ে আরও একটি আবেদন জেলা প্রশাসক বরাবর জমা দেয়া হয়েছে বলে জানান আব্দুল মালেক।

এ বিষয়ে ইউএনও ফিরোজ হাসানের নিকট জানতে চাইলে, তিনি বলেন- সরকারী পুকুরটি অনেকদিন হতে অব্যবহৃত থাকার কারণে কচুরিপানায় ভরে যায়। এলাকাবাসী ঐ পুকুরে গোসলসহ অন্যান্য কাজ করে থাকে। এলাকাবাসীর মৌখিক আবেদনের প্রেক্ষিতে পুকুরটি কচুরিপানা মুক্ত করি। মাছ মেরেছেন কিনা জানতে চাইলে, তিনি বলেন- পুকুরে মাছ আছে কিনা তা দেখার জন্য জাল ফেলা হয় কিন্তু ৩/৪ কেজি ওজনের ৪ টি মাছ ছাড়া আর কোন মাছ পাওয়া যায়নি। পুকুরটি অব্যবহৃত থাকার কারণে পুকুরে কোন মাছ ছিলনা বলে জানান ইউএনও ফিরোজ হাসান।

পুকুরটির পাশে বসবাসকারীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ইউএনও ফিরোজ হাসান, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা কামরুজ্জামান সর্দার, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান কাদির ও মহিলা মেম্বার রেনু উপস্থিত থেকে উক্ত সুরানপুর পুকুর হতে মাছ মারা হয়েছে। কত পরিমান মাছ মারা হয়েছে? এর কোন সদুত্তর দিতে পারেনি এলাকাবাসী।

Please follow and like us:

Related posts