যেভাবে আটক হলেন ‘ইয়াবা সুন্দরী’ হালিমা

কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের মরিচ্যা চেকপোষ্টেরর দায়িত্বরত বিজিবি’র সদস্যরা টেকনাফের ইয়াবা সুন্দরী হালিমাকে আটক করেছে।

আজ শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে কক্সবাজারগামী যাত্রীবাহী সী লাইন সার্ভিস বাসে তল্লাশী চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

মরিচ্যা যৌথ চেকপোস্টের সুবেদার নজরুল ইসলাম জানান, কক্সবাজারগামী একটি যাহীবাহী সী লাইন সার্ভিসে তল্লাশি চালিয়ে সুন্দরী হালিমাকে আটক করা হয়। এসময় তার শরীরে তল্লাশী চালিয়ে ৭ হাজার ৯শ’ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। সে টেকনাফের সদর ইউপি মেম্বার আব্দুল হামিদের স্ত্রী ও হ্নীলা ইউনিয়নের পূর্ব লেদা গ্রামের জাফর আলমের মেয়ে।

জানা গেছে, হালিমা ইতিমধ্যে কয়েক স্বামী বদল করেছে। প্রথম স্বামীর ঘরে তার ৩ সন্তান রয়েছে। তার সর্বশেষ স্বামী টেকনাফ সদর ইউপি মেম্বার আব্দুল হামিদ। ৪/৫ বছর আগে হামিদকে বিয়ে করার পর সে গোদারবিল ব্র্যাক অফিস সংলগ্ন এলাকায় স্বামীর সাথে বসবাস করতো। তখন থেকে সে ইয়াবা কারবারে জড়িয়ে পড়ে।

Please follow and like us:

Related posts