গোদাগাড়ীতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড এর পরিচিতি সভা

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ রাজশাহী গোদাগাড়ীতে গোদাগাড়ী উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড কর্তৃক আয়োজিত উপজেলা মিলনায়তনে বেলা ১২ টার সময় স্বাধীনতার মহান স্থপতি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদাত বার্ষিকীতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড এর পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। গোদাগাড়ী উপজেলা ভারপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার অশোক কুমার চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মাননীয় সংসদ সদস্য রাজশাহী-১ গোদাগাড়ী-তানোর, রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী, আরও উপস্থিত ছিলেন, গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ নেওয়াজ, কাঁকনহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল মজিদ, গোদাগাড়ী পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান রবিউল আলম, গোদাগাড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বদিউজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ, মহিলা আওয়ামীলীগের নেত্রী ও জেলা পরিষদের সদস্য কৃষ্ণা দেবী, গোদাগাড়ী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিপজুর আলম মুন্সি, বিভিন্ন ইউনিয়ন এর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও সকল মুক্তিযোদ্ধাগণ উপস্থিত ছিলেন। মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সভাপতি আশরাফুজ্জামান মাসুম, সহ-সভাপতি শহিদুল ইসলাম ও নবীরুল, সাধারণ সম্পাদক ওবাইদুর রহমান মিলু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুক্তার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক নাফিউল ইসলাম নাহিদ সহ ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির পরিচিতি সভা হয়। ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন, মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, বঙ্গবন্ধু, আওয়ামীলীগ, নৌকা একই লাইনে বা একই সুতায় গাথা। এগুলোর মধ্যে কোন দূরত্ব হলে চলবে না। মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদবুদ্ধ হয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সরকারকে সহযোগীতা করে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। তিনি আরও বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের ৩শ টাকার ভাতা থেকে ১ হাজার টাকার ভাতাতে রুপান্তরিত করে আওয়ামীলীগ সরকার। তাই আওয়ামীলীগ সরকারকে ভুলে গেলে চলবে না। আগামী নির্বাচনে নৌকা মার্কা কে জয়যুক্ত করে সারা বাংলাদেশকে, বাংলাদেশের মানুষকে এবং মুক্তিযোদ্ধাদের ক্ষতির হাত থেকে রক্ষার করতে হবে।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment