‘ক্ষমা না চাইলে, ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও মিডিয়ায় ফাঁস’

মুখে লাগাম নেই, কাউকে ভয় পান না তিনি। তা ফের একবার বুঝিয়ে দিলেন ‘‍গ্যাংস্টার’‍ গার্ল কঙ্গনা রানাওয়াত।আর তাই বোধ হয় ‘‍আপ কি আদালত’‍ শো-তে এসে জানালেন বিস্ফোরক সব তথ্য। মুখ খুললেন একের পর এক বিষয় নিয়ে। সাবেক বয়ফ্রেন্ড হৃত্বিক থেকে শুরু করে বলিউডের প্রভাবশালী পরিচালক প্র‌যোজক করণ জোহর কাউকেই ছেড়ে কথা বলেননি কঙ্গনা। সাফ জানিয়ে দিলেন, ‌যোগ্যতা, দক্ষতা  এবং প্রতিভা থাকলে কাউকে আটকানো ‌যায় না।
কঙ্গনা জানান, ব্রেকআপের পর বিভিন্নভাবে তাকে হুমকি দিয়েছেন হৃত্বিক। হৃত্বিকের উদ্দেশ্য কঙ্গনা বলেন, ‘‍ও‍ প্রকাশ্যে নোটিসে লিখেছিল, আমি ওর কাছে ক্ষমা না চাইলে, আমার ব্যক্তিগত সমস্ত ছবি ও ভিডিও মিডিয়ার সামনে ফাঁস করে দেবে।
অভিনেত্রী আরও বলেন, ‘‍’আমি সবকিছু জেনেই সম্পর্কে জড়িয়েছিলাম। ও বলেছিল, ‌যে আমায় কখনোই জনসমক্ষে স্বীকার করতে পারবে না। ও ওর বউকে ছাড়তে পারবে না, তখন আমি আমাকে ছেড়ে দিতে বলেছিলাম, কিন্তু ও সেটাও করেনি। সেকারণেই আমি কৃষ ৩-তে কাজ করতে চাইনি, তবে ও কৃষ ৩-তে সই করানোর জন্য ৪ মাস আমার পিছনে ঘুরছিল। ‘‍
হৃত্বিক কীভাবে বিভিন্ন সময় তাঁকে ব্ল্যাকমেইল করেছেন তাও জানিয়েছেন কঙ্গনা। তিনি জানান, তিনি হৃত্বিকের বাবা রাকেশ রোশনকেও ফোন করে সব জানিয়েছিলেন তিনি। রাকেশ রোশন তার ছেলের সঙ্গে কথা বলিয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিলেও পরে তা তিনি করেননি।
এদিন ‘‍আপ কি আদালত’ অনুষ্ঠানে এসে পরিচালক-প্র‌যোজক করণ জোহরকে ‘‍মুভি মাফিয়া’‍ বলে চিহ্নিত করেন। ফের একবার করণ জোহরকে ‘‍নেপোটিজম’‍ বিতর্কে তোপ দাগেন। তিনি বলেন, ‘‍করণের সঙ্গে আমি একটাই সিনেমা করেছিলাম, ‌যা ফ্লপ হয়েছিল। আমার ওনার কাছ থেকে কোনও কাজ চাই না।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related posts

Leave a Reply