উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

রাজশাহী: উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে আবারো নৌকা প্রতীকে ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বর্তমান সরকারের উন্নয়নগুলো তুলে ধরে তিনি নৌকা প্রতীকে ভোট চান। বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রাজশাহীর পবা উপজেলার হরিয়ান চিনিকল মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগের জনসভায় প্রধান অতিথির ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এ আবেদন করেন।

সাধারণ মানুষকে উদ্দেশ্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আপনাদের কাছে আমার একটাই অনুরোধ থাকবে আওয়ামী লীগ আপনাদের সংগঠন। এই আওয়ামী লীগ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের নেতৃত্বে সংগ্রম করে আপনাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছে। আপনারা দেখেছেন যখন আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে, যখন নৌকা মার্কা ক্ষমতায় আসে তখন দেশের উন্নয়ন হয়। কিন্তু ওই বিএনপি-জামায়াত জোট আসলে কি হয়? সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, বাংলা ভাই, মানুষের জীবন অতিষ্ট হয়ে যায়। এমন কি জনগণের টাকা, এতিমখানার টাকা সে টাকাও তারা চুরি করে খায়, বিদেশে তারা বৃত্ত ভৈবর বাড়ায়। এটাই তাদের চরিত্র। জনগনের সম্পদ লুট করে নিজেরা বিলাসবহুল জীবনযাপন করে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরো বলেন, আওয়ামী লীগ জনগণের সম্পদ। এ আওয়ামী লীগ যখন কাছে টেনে নিয়েছে ইনশাল্লাহ বাংলাদেশে কোন দারিদ্র থাকবে না। আজকে বাংলাদেশে ৫ কোটি মানুষ দারিদ্রসীমার উপরে বাস করছে। বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী। আজকে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বিশ্বে বাংলাদেশ রোল মডেল।

আপনাদের কাছে দোয়া চাই। আপনার দোয়া করবেন। আগামী নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে নৌকার প্রার্থীকে জয়যুক্ত করে সেবা করার সুযোগ দিবেন। তাহলেই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকবে। ওই লুটেরা যারা সন্ত্রাসের সৃষ্টি করেছে, জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করেছে তারা ক্ষমতায় আসলে এ দেশ জঙ্গিবাদের দেশ হবে, সন্ত্রাসের দেশ হবে।

রাজশাহীর মানুষের সার্বিক উন্নয়নে যা যা করা দরকার সব করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, আমার কাছে দাবি করার প্রয়োজন নেই। আমি জাতীরজনকের কন্যা। আমি জানি কিভাবে উন্নয়ন করতে হয়। আগামীতেও রাজশাহী ও রাজশাহীর মানুষের সার্বিক উন্নয়নের জন্য যা যা করণীয় আমরা তা করে যাব বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃষ্টি উপেক্ষা করে জনসভায় যোগ দেয়ার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে রাজশাহীতে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, হাইটেক পার্ক, পদ্মার ভাঙন রোধে বাঁধ নির্মাণ করাসহ গত নয় বছরে রাজশাহীর উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে বিকেল ৩টায় রাজশাহীর পবা উপজেলার হরিয়ান চিনিকল মাঠে জনসভায় পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জনসভাস্থলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৭টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। এর পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মঞ্চে উঠে হাত নেড়ে জনসভায় আগতের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। বিকেল সাড়ে ৩টা ৩৫ মিনিটে ভাষণ শুরু করে ৪টা ৫ মিনিটে শেষ করেন প্রধানমন্ত্রী। ৩০ মিনিটের ভাষণে প্রধানমন্ত্রী তার সরকারের আমলে রাজশাহীর উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরেন।

জনসভায় বক্তব্য রাখেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাছিম, রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও নগর সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাজশাহী-১ আসনের সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরী।

Related posts

Leave a Comment