‘মাদার অব হিউম্যানিটি’ খেতাব পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

রোহিঙ্গা ইস্যুতে ভূমিকা রাখায় বিশ্বজুড়ে প্রসংশিত হচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। লন্ডনের নামকরা একটি টেলিভিশন এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রীকে ‘মাদার অব হিউম্যানিটি’ খেতাবে ভূষিত করেছে। এ তথ্য জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য তোফায়েল আহমেদ। শনিবার দুপুরে রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্সে বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে তিনি এ তথ্য জানান।

এ সময় তোফায়েল অভিযোগ করে বলেন, রোহিঙ্গাদের সহায়তা করায় আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মানবিক নেত্রী হিসেবে অবহিত করা হচ্ছে। আর বিএনপি এটাকে নিয়ে রাজনীতি করার চেষ্টা করছে। কিন্তু বাংলাদেশে একটি দল (বিএনপি) আছে যারা অং সান সু চির সঙ্গে তুলনা করে বক্তব্য দাঁড় করিয়েছে। চিন্তা করে দেখেন ওরা কত নোংরা। এদের চিন্তা চেতনা কতো নিচু।

তবে বিএনপির অভিযোগের পরও রোহিঙ্গা ইস্যুতে কূটনৈতিকভাবে বর্তমান সরকার সফল দাবি করে তিনি বলেন, বিএনপি বলে আমাদের কূটনৈতিক তৎপরতা তেমন না। কূটনৈতিক তৎপরতা না থাকলে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) মিয়ানমারকে নিন্দা করল কীভাবে? ইইউ বলেছে, মিয়ানমার একদিকে বাণিজ্যিক সুবিধা নিবে, অন্যদিকে গণহত্যা করবে, তা হতে পারে না। তাদের বিবৃতিতে মিয়ানমারের ঘটনাকে আন্তর্জাতিক বিশ্ব এখন গণহত্যা হিসেবে আখ্যায়িত করছে।

খালেদা জিয়া নিখোঁজ মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের এ বর্ষীয়ান বলেন, তুরস্কের ফার্স্ট লেডি এসেছেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এসেছেন, ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এসেছেন। কিন্তু কোথায় খালেদা জিয়া? বেগম খালেদা জিয়া নিখোঁজ! জাতিসংঘে আজ এ বিষয়ে আলোচনা হবে। গতকাল পেপারে দেখলাম জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ সর্বসম্মতিক্রমে একটা সিদ্ধান্ত দিয়েছে যে, কেউ তার ভেটো প্রদান করেনি।

 

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment