যেভাবে পালিত হবে শেখ হাসিনার জন্মদিন

অনলাইন ডেস্ক ঃ প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার জন্মদিন আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর। তবে অন্যান্য বছরের মতো জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনের মধ্য দিয়ে নয়, দেশের বিরাজমান রোহিঙ্গা সমস্যা ও পর পর বন্যায় বিপর্যস্ত মানুষের কথা বিবেচনা করে এবার প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনটি মানবিক কর্মসূচির মাধ্যমে পালন করতে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ।

আওয়ামী লীগের বিভিন্ন স্তরের নেতারা আড়ম্বর পরিবেশে জন্মদিন উদযাপনের প্রস্তাব করলেও গত ৯ সেপ্টেম্বর নেতাকর্মীদের নিজের আপত্তির কথা জানান শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, দেশের মানুষের এই পরিস্থিতিতে আমার জন্মদিন উদযাপন অনিবার্য নয়।

গত সপ্তাহে ১৪ দলের (উন্মুক্ত) বৈঠকে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী প্রস্তাব করেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক দৃষ্টিভঙ্গির কারণে তিনি বিশ্বের খ্যাতনামা গণমাধ্যমে ‘মাদার অব হিউম্যানিটি’ আখ্যা পেয়েছেন। তাই এবারের জন্মদিনটি যেন ‘জাতীয় মানবতা দিবস’ হিসেবে পালন করা হয়। বৈঠকে উপস্থিত আওয়ামী লীগসহ ১৪ দলের অনেক নেতা এতে একমত পোষণ করেন।

অবশেষে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, দিনটি মানবতা দিবস হিসেবে নয়, বরং মানবিক কাজের মধ্য দিয়ে অতিবাহিত করা হবে।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম জানিয়েছেন, সরকারি উদ্যোগে ২৮ সেপ্টেম্বর সারা দেশের সব সরকারি হাসপাতালে অতিরিক্ত দুই ঘণ্টা বিশেষ চিকিৎসাসেবা দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেহেতু মানবতার নেত্রী, তিনি সব ক্ষেত্রে মানুষের সেবা করছেন, তাই এই নেত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর সারা দেশের সব সরকারি হাসপাতালে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চিকিৎসাসেবা দেওয়া হবে।

এ ছাড়া আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠন, অঙ্গসংগঠনগুলোও স্বেচ্ছায় রক্তদান, দরিদ্রদের মধ্যে খাদ্য বিতরণের করবে বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান বলেন, আমাদের দলের সভাপতি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষের জন্য রাজনীতি করেন। দেশের দুর্দিনে তিনি নিজে যেমন উপস্থিত হন, আমাদেরও থাকতে বলেন। শুধু তাই নয়, তিনি সার্বক্ষণিক তাদরক করেন। তাই মানবিক এই নেত্রীর জন্মদিনটি মানবিক কাজের জন্য উৎসর্গ করব।

Related posts

Leave a Comment