চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রতিপক্ষের ছোড়া এসিডে ঝলসে গেছে যুবকের শরীর

নিজস্ব প্রতিবেদক : চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে প্রতিপক্ষের ছোড়া এসিডে ঝলসে গেছে মেরাজুল ইসলাম (৩০) নামে এক যুবকের শরীর।

এসিড আক্রান্ত মেরাজুল ইসলাম উপজেলার ধাইনগর ইউনিয়নের রাণীনগর গ্রামের মৃত আবদুস সোবহান খোকার ছেলে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ধাইনগরের রাণীনগর এলাকায়। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে একই এলাকার মৃত রাকিমুদ্দিন ছেলে সায়েদ আলী (৪৫) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রোববার দিবাগত রাতে ওই ব্যক্তির শরীরে এসিড ছুড়ে মারে প্রতিপক্ষের লোকজন। পরে তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ২৯ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

এসিড আক্রান্ত মেরাজুলের ভাতিজা সোহেল রানা জানান, রোববার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে বাড়ির প্রাচীর টপকিয়ে ঘরের মধ্যে ঢুকে এসিড ছুড়ে মারা হয় মেরাজুলের শরীরে। এসময় তিনি তার ঘরে স্ত্রী সুমি বেগম এবং ৫ বছরের শিশু সন্তান সাব্বিরকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন। ঘুমন্ত অবস্থায় এসিড ছুড়ে মারে একই এলাকার সায়েদ, রুহুল এবং মুক্তারসহ অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা। এসময় মেরাজুলের শরীরে এসিড নিক্ষেপ করে ঘরের মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে পালোনোর চেষ্টা করে সন্ত্রাসীরা।

তবে এসিড আক্রান্ত মেরাজুল এবং তার পরিবারের সদস্যদের চিৎকারে আশেপাশের লোকজন বেরিয়ে আসলে পালিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা।

এদিকে রামেক হাসপাতালের ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের একজন ইন্টার্নি চিকিৎসক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, এসিড আক্রান্ত মেরাজুলের অবস্থা অনেকটাই গুরুত্বর। তার মুখ, বুক, বাম হাতসহ শরীরের অনেকটা অংশ ঝলসে গেছে।

এদিকে এসিড আক্রান্ত মেরাজুলের ভাই আলমাস উদ্দিন বাদি হয়ে শিবগঞ্জ থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন।

এব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুল ইসলাম হাবিব জানান, এঘটনায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে আসামি সায়েদ গ্রেফতার করে। বাকি আসামিদের গ্রেফতার করতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

Related posts

Leave a Comment