মানসম্পন্ন পণ্য উৎপাদন করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিশ্বায়নের যুগে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে গুণগত মানসম্পন্ন পণ্য উৎপাদন ও উন্নত সেবার বিকল্প নেই। বিশ্ব মান দিবস উপলক্ষে দেয়া এক বাণীতে তিনি এ কথা বলেন। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও জাতীয় মান সংস্থা বিএসটিআই’র উদ্যোগে শনিবার বিশ্ব মান দিবস’ পালিত হচ্ছে জেনে সন্তোষ প্রকাশ করে শেখ হাসিনা বলেন, পণ্য বা সেবার বাজার সম্প্রসারণে মানের গুরুত্ব সর্বাধিক।

তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক মান অনুসরণ করে উৎপাদিত পণ্য ও সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান আন্তর্জাতিক বাজারে আস্থার প্রতীক হিসেবে সমাদৃত হচ্ছে। মানসম্পন্ন পণ্য কিংবা সেবা প্রচারের শীর্ষে পৌঁছে যায় উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এর ফলে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে মানসম্পন্ন পণ্য প্রতিষ্ঠা করে নেয় একচ্ছত্র চাহিদা।

আন্তর্জাতিক মান সংস্থা (আইএসও), ইন্টারন্যাশনাল ইলেকট্রো টেকনিক্যাল কমিশন (আইইসি) এবং ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়ন (আইটিইউ) এবার এ দিবসের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করেছে ‘নান্দনিক নগরায়ণে মান’।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে কোনো পণ্য উৎপাদনের ক্ষেত্রে দেশীয় পদ্ধতি ও উৎপাদিত পণ্যের আন্তর্জাতিক মান অক্ষুণ্ন রাখার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করতেন। জাতির পিতার নেতৃত্বে বাংলাদেশ ১৯৭৪ সালে তৎকালীন মান সংস্থা বিডিএসআই আইএসও’র সদস্যপদ লাভ করে।

তিনি বলেন, নিরাপদ ও বিশ্বাসযোগ্য পৃথিবী গড়তে আন্তর্জাতিক ‘মান’র ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। নান্দনিক নগরায়ণের পূর্বশর্ত হলো দৈনন্দিন জীবনে খাদ্য থেকে শুরু করে সকল ব্যবহার্য ভোগ্যপণ্য, বাসস্থান, সেবা কার্যক্রম, তথ্য ও যোগাযোগ অর্থাৎ অর্থনৈতিক উন্নয়ন-সংশ্লিষ্ট সকল কার্যক্রমের যথাযথ মান নিশ্চিত করা এবং মানুষের প্রত্যাশা পূরণ করা।

শেখ হাসিনা বলেন, আমি আশা করি, দেশের জনগণের জীবনমান উন্নয়নে মানসম্পন্ন সেবা সকলের নিকট পৌঁছে দিতে বিএসটিআই, পণ্য ও সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠানসহ সংশ্লিষ্ট সকলে যথাযথ ভূমিকা পালন করবেন।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment