সুখী ও সমৃদ্ধশালী দেশ গঠনে সশস্ত্র বাহিনীও অংশীদার: প্রধানমন্ত্রী

0

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সুখী ও সমৃদ্ধশালী দেশ গঠনের যে প্রচেষ্টা বর্তমান সরকার চালিয়ে যাচ্ছে।

বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনীও এর গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশ গঠনে সশস্ত্র বাহিনীর আরও ভূমিকা প্রত্যাশা করেছেন তিনি। জনগণের কল্যাণে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

মঙ্গলবার বিকালে সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষ্যে সেনাকুঞ্জে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘এদেশ আমাদের, এদেশের যত উন্নতি হবে, মানুষের আর্থসামাজিক অবস্থার ততই উত্তোরণ ঘটবে। বিশ্বমানের শিক্ষা, জ্ঞান, বিজ্ঞান শিক্ষা, খেলাধূলা এবং অন্যান্য ক্ষেত্র গড়ে তুলে বাংলাদেশকে মর্যাদাবান জাতি রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বে প্রতিষ্ঠার জন্য বর্তমান সরকার নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।’ এজন্য সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টার প্রয়োজন বলেও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, সশস্ত্র বাহিনী আজ তাদের সততা, নিষ্ঠা, কর্মদক্ষতা এবং নানাবিধ জনসেবামূলক কর্মকাণ্ডের জন্য সার্বজনীন গ্রহণযোগ্যতা অর্জন করেছে। তিনি বলেন, দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার পাশাপাশি যেকোনো দুর্যোগ কবলিত অঞ্চলে আর্তমানবতার সেবা ও জান-মাল রক্ষায় সশস্ত্র বাহিনী যে আন্তরিকতা ও দায়িত্ববোধ নিয়ে বিপর্যস্ত জনগণের পাশে দাঁড়ায় তা জাতি কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ রাখবে।


তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ