‘রায়ের আগেই বিএনপি খালেদা জিয়াকে দেউলিয়া ও দুর্নীতিবাজ বানিয়েছে’

0

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির গঠনতন্ত্রের ৭ ধারা এখন কোথায়? রাতের আঁধারে কলমের খোঁচায় গায়েব হয়ে গেছে। কারণ ৮ ফেব্রুয়ারি। তাদের অনেক ভয়। তারা তো জানে এতিমদের টাকা কোথায় গেছে। তাদের ৭ ধারা অনুযায়ী কেউ উন্মাদ হলে, দেউলিয়া বা দুর্নীতিবাজ হলে দলের এমপি, নেতা এমনকি সদস্যও হতে পারবেন না।

৮ তারিখে রায় হবার আগেই বিএনপি খালেদা জিয়াকে উন্মাদ, দেউলিয়া ও দুর্নীতিবাজ বানিয়েছে। রাতের আঁধারে তাদের গঠনতন্ত্র থেকে ৭ ধারা বাদ দিয়েছে। কারণ তারা জানতো। নির্দোষ কি দোষী- সেটা আদালত নির্ধারণ করার আগেই বিএনপি এই ৭ ধারা বাদ দিয়ে প্রমাণ করলো ঠাকুর ঘরে কে রে, আমি কলা খাই না। বিএনপি একটি দেউলিয়া দল। তাদের ঘরে গণতন্ত্র নেই। না হলে তারা ২ বছর পর কমিটি করতে লা মেরিডিয়ান হোটেলে, যেখানে আমার কর্মীদের যাওয়ার সাহসও নেই, সেখানে মিটিং করেছে।

তিনি বলেন, আপনারা বিএনপির কোনো উসকানিতে পা দেবেন না। তারা যে আচরণ করবে তার জবাব পাবে, যেমন কুকুর তেমন মুগুর দেওয়া হবে।

আজ রোববার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ আয়োজিত যুবসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

‘বিএনপির সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও জঙ্গিবাদী রাজনীতির প্রতিবাদে’ এ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ইসমাঈল চৌধুরী সম্রাট।
অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন, যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ প্রমুখ। সভা পরিচালনা করেন সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক একেএম মমিনুল হক সাঈদ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা ৮ তারিখ কোনো কর্মসূচি দেব না। তবে মামলার রায়কে কেন্দ্র করে অশান্ত পরিস্থিতি মোকাবিলায় সর্তক পাহারায় থাকব।’
দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে সেতুমন্ত্রী বলেন, আপনারা বিএনপির কোনো উসকানির ফাঁদে পা দেবেন না। তারা যদি রাস্তা দখল করে জনভোগান্তি সৃষ্টি করে তাহলে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবিলা করবে। যেমন কুকুর, তেমন মুগুর। কুকুরের যেমন ঘেউ ঘেউ, মুগুরটাও ঠিক তেমনই নেমে আসবে।

যুবলীগের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, ‘আপনারা শুধু সর্তক থাকবেন। প্রয়োজনে নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে জনগণকে সঙ্গ নিয়ে আমরা এই পরিস্থিতি মোকাবিলা করব। আমরা উসকানি দেব না। কেউ যদি উসকানি দেয় তাহলে ওই যে বললাম, যেমন কুকুর তেমন মুগুর।’

৮ তারিখ খালেদা জিয়ার মামলার রায়কে কেন্দ্র করে বিভিন্নভাবে উত্তেজনা ছড়ানো হচ্ছে উল্লেখ করে কাদের বলেন, ‘আমি পরিষ্কারভাবে বলতে চাই-আমরা কারো সঙ্গে পাল্টাপাল্টিতে যাবো না। আমরা ক্ষমতায় আছি। আমরা দেশ চালাচ্ছি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে। আমাদের এখন মাথা গরম করার সুযোগ নেই। আমাদের ঠাণ্ডা মাথায় পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হবে।’

সেতুমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বিএনপি উন্মাদ হলে আমরাও কি উন্মাদ হব? আমরা দেশে শান্তি চাই। আমরা কেন গোলমাল করতে যাব? কেন অস্থিরতাকে ডেকে আনব? আমরা এটা করব না। কিন্তু কেউ উসকানি দিলে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা পরিস্থিতি অনুযায়ী যা যা প্রয়োজন সেটা করবে। এটার কিন্তু বিকল্প নাই।’


তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

ব্রেকিং নিউজঃ