‘বাংলাদেশে অবাধ-গণতান্ত্রিক নির্বাচন দেখতে চায় যুক্তরাজ্য’

0

অনলাইন ডেস্কঃ যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, বাংলাদেশে মুক্ত, অবাধ ও গণতান্ত্রিক নির্বাচন দেখতে চায় যুক্তরাজ্য। একইসঙ্গে স্বাধীন সংবাদ মাধ্যম প্রত্যাশা করে তারা।

শুক্রবার রাতে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্য পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। বাংলাদেশের পক্ষে বৈঠকে নেতৃত্ব দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী ও যুক্তরাজ্যের পক্ষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন।

বরিস জনসন বলেন, বাংলাদেশ গত কয়েক দশকের মধ্যে একটি বড় মানবিক সংকটে রোহিঙ্গাদের জরুরি আশ্রয় দিয়ে উজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। রোহিঙ্গাদের তাদের দেশে মর্যাদার সঙ্গে প্রত্যাবর্তন ও স্থায়ীভাবে বসবাস করানো এখন গোটা বিশ্বের জন্যই চ্যালেঞ্জ।

রোহিঙ্গাদের দেখতে শনিবার তিনি কক্সবাজার যাবেন বলে জানান। রোহিঙ্গাদের বিষয়ে কথা বলতে তিনি মিয়ানমারেও যাবেন বলে সাংবাদিকদের জানান।

বরিস জনসন বাংলাদেশ সফরকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

দুই দিনের সফরে যুক্তরাজ্যের বরিস জনসন শুক্রবার ঢাকায় আসেন। বিকেল ৫টার দিকে ঢাকার শাহজালাল মিানবন্দরে পৌঁছালে পররাষ্ট্র সচিব (দ্বিপক্ষীয়) কামরুল আহসান, ইউরোপ উইংয়ের মহা পরিচালক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম খাস্তগির এবং ঢাকায় ব্রিটিশ হাই কমিশনার অ্যালিসন ব্লেক তাকে স্বাগত জানান।

প্রায় ১০ বছর পর যুক্তরাজ্যের একজন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকা সফর করছেন। এর আগে ২০০৮ সালে যুক্তরাজ্যের তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডেভিড মিলিব্যান্ড ঢাকা সফর করেছিলেন।


উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

ব্রেকিং নিউজঃ