শাকিব-অপু’র সম্পর্কের ফল ১১ মার্চ

0

২০১৭ সালের ২২ নভেম্বর স্ত্রী অপু বিশ্বাসকে তালাক নামা পাঠান স্বামী শাকিব খান। সেই চিঠি নগর ভবনে যায় ৪ ডিসেম্বর। সকল প্রক্রিয়া শেষ করে ১১ ডিসেম্বর চিঠিটি গ্রহণ করে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন।

নিয়ম অনুযায়ী নব্বই দিনের মধ্যে শেষ হয় বিয়ে বিচ্ছেদ প্রক্রিয়া। শাকিব-অপু’র বিচ্ছেদ বিষয়ক কার্যক্রম হিসেব হবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের চিঠি গ্রহণের দিন অর্থাৎ ১১ ডিসেম্বর থেকে। সেই হিসেবে বিচ্ছেদ প্রক্রিয়ার নব্বই দিন শেষ হবে ১১ মার্চ। আর সেই দিনেই তৃতীয় ও শেষ সালিশের দিন ধার্য করেছে উত্তর সিটি করপোরেশন।

১১ মার্চ কোনো সমঝোতা না হলে বিচ্ছেদ ঘটবে ঢালিউডের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও আলোচিত জুটি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের।

গত ১৫ জানুয়ারি ছিল শাকিব অপুকে নিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রথম সালিশ। সেদিন একাই উপস্থিত ছিলেন অপু বিশ্বাস। শাকিব খান না থাকায় সালিশের পরবর্তী দিন ধার্য করা হয় ১২ ফেব্রুয়ারি।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের সালিশে উপস্থিত হননি কেউ। শাকিব খান শুটিংয়ে রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ায়। অপু বিশ্বাস আছেন ঢাকায়। শাকিব খান দেশে না থাকায় অপু আসেননি সালিশে।

নিয়ম অনুযায়ী তালাকনামা পাঠানোর নব্বই দিন পর তা কার্যকর হয়। এই নব্বই দিনের মধ্যে সিটি করপোরেশন দম্পতিকে নিয়ে সমঝোতার আলোচনায় বসেন। কিন্তু প্রথম সালিশে শাকিব এবং দ্বিতীয় সালিশে শাকিব-অপু দুজনেই অনুপস্থিত থাকায় সমঝোতা হবে না বলেই ধারণা করছে সালিশ কমিটি। সুত্র: সারাবাংলা


তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ