শিবগঞ্জে পুলিশের সোর্স পরিচয়ে টাকা ছিনতাইকালে ছিনতাইকারী আটক

0

টুটুল রবিউল: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ পৌর এলাকার গুড়পট্টিতে এক ব্যবসাযীর কাছ থেকে ৩ লক্ষ টাকা পুলিশের সোর্স পরিচয়ে ছিনতাই করার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার বিকেলে পৌর এলাকার ৩নং ওয়ার্ডের বড়চকদৌলতপুর গুড়পট্টিতে এ ঘটনা ঘটে। আটক ছিনতাইকারী শিবগঞ্জ উপজেলার শাহবাজপুর ইউনিয়নের দৌলতবাড়ি গ্রামের মনিরুল ইসলামের ছেলে ইউসুফ আলী এবং নওগাঁ জেলার নিয়ামতপুর থানার ফাইজুদ্দিনের ছেলে আইন্যাল হক।

ছিনতাইয়ের চেষ্টার সময় শিবগঞ্জ থানা পুলিশ খবর পেয়ে শিবগঞ্জ থানার এক এসআই ও পুলিশের ২ সোর্সকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। ছিনতাইয়ের শিকার আম ও গুড় ব্যবসায়ী এবং পৌর ১নং ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগের সভাপতি মো: মাইনুল ইসলাম জানান, সে শিবগঞ্জ সোনালী ব্যাংক থেকে ৩ লাখ টাকা নিয়ে বাড়ি যাওয়ার পথে গুড়পট্টিতে পৌছা মাত্র পুলিশের ২ সোর্স ব্যাগে ইয়াবা আছে দাবী করে ব্যাগ ধরে টানা হেচড়ার করে। একপর্যায়ে রাস্তায় ফেলে মারপিট করতে থাকে।

এ সময় স্থানীয়রা জানতে পেরে ঘটনাস্থল ঘিরে ফেলে এবং ঐ ২ জনকে আটক করে। ছিনতাইয়ের শিকার মাইনুল আরও জানান, সোর্সের সাথে শিবগঞ্জ থানার এসআই শহিদুল ইসলাম ঘটনাস্থলে উপস্থিত থেকে ব্যাগ কেড়ে নেয়ার চেষ্টা করে। এ ব্যাপারে ৩ নং ও ৭ নং ওয়ার্ড সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন এবং ছিনতাই চেষ্টার সাথে এসআই শহিদুল ইসলামের দুই সোর্স জড়িত থাকার বিষয়টি শিকার করেন। খবর পেয়ে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ দুই র্সোসকে আটক করে এবং এসআই শহিদুল ইসলামকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এদিকে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগ ও দলটির অঙ্গসংগঠনের নেতা কর্মীরা থানার সামনে বিক্ষোভ করলে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ হাবিবুল ইসলাম নেতা কর্মীদের বিক্ষোভ থেকে নিবৃত্ত করার চেষ্টা করেন।

এ ব্যাপারে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ সুপার টি.এম.মোজাহিদুল ইসলাম জানান, বিষয়টি তদন্ত হচ্ছে। এ ব্যাপারে অভিযোগ দায়েরে পর তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে এবং সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) মাইনুল ইসলামকে শিবগঞ্জ থানায় বিষয়টি তদন্ত করার জন্য পাঠানো হয়েছে। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত শিবগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।


তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ