অপহরণে সঙ্গ না দেয়ায় বন্ধুদের হাতে কলেজছাত্র খুন

0

বন্ধুদের কথা মতো অপহরণে রাজি না হওয়ায় খুন হতে হলো মাহদুদুর রহমান ফয়সাল নামে এক কলেজছাত্রকে।

নিখোঁজের ১৬ দিন পর মঙ্গলবার (২০ মার্চ) রাতে সাভারের জোরপুল এলাকার একটি খোলা মাঠে বালু চাপা দেওয়া অবস্থায় ফয়সালের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় নিহতের বন্ধু রাজু ও আকাশকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নিহত ফয়সাল সাভারের হেমায়েতপুরের মো. মাসুদ রানার ছেলে। সে সাভারের কলেজ এক্স এ একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলো।

গ্রেফতার রাজু ও আকাশ দু’জনই রাজধানীর হাজারীবাগে চামড়া কারখানায় কাজ করতো। রাজু সাভারের হোময়েতপুরের আইয়ুব আলীর ছেলে ও আকাশের গ্রামের বাড়ি দিনাজপুরের বিরামপুরে।

নিহতের চাচা মো. মিন্টু মিয়া বলেন, রাজু ও আকাশ ফয়সালকে হত্যা করে বালু চাপা দেয়। এ ঘটনায় তোফায়েল হোসেন তুহিন নামে আরও একজন জড়িত রয়েছে। সে পলাতক। রাজু ফয়সালের দুঃসম্পর্কের মামা। রাজুসহ তার দুই বন্ধু আকাশ ও তুহিন পরিকল্পনা করে ফয়সালকে হত্যা করে। হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

এ বিষয়ে সাভার সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খোরশেদ আলম জানান, গত ৫ মার্চ রাতে কলেজ ছাত্র ফয়সাল বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয়। এরপর পুলিশ তদন্ত শুরু করে। মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে তার দুই বন্ধুকে দিনাজপুর থেকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়। তাদের তথ্যের ভিত্তিতে সাভারের হোমায়েতপুরের পার্শ্ববর্তী জোরপুল এলাকায় বালু চাপা দেওয়া অবস্থায় ফয়সালের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

তিনি জানান, তারা ফয়সালকে নিয়ে অপহরণের নাটক সাজিয়ে ফয়সালের বাবার কাছ থেকে ৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করে। ফয়সাল রাজি না হওয়ায় তাকে সেখানেই শ্বাসরোধ করে হত্যা করে বালু চাপা দেয় বলে প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে গ্রেফতার দুইজন। এ ঘটনায় আরও যারা জড়িত তাদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ