স্ত্রীর মর্যাদার দাবিতে ছেলেকে নিয়ে সংবাদ সম্মেলন ‘শিবগঞ্জ থানার সাবেক এসআইয়ের বিরুদ্ধে’

0

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার বীরাঙ্গনা’র কন্যা সানজিদা ইয়াসমিন রানী স্ত্রী’র মর্যাদা চেয়ে তার স্বামী পুলিশ কর্মকর্তা আমিনুলের ইসলামের বিরুদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে ভূক্তভোগী সানজিদা। শনিবার সকাল ১০ টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রেসক্লাবে এ সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সানজিদা তাঁর লিখিত বক্তব্যে বলেন, শিবগঞ্জ থানায় কর্মরত অবস্থায় ২০০৮ সালে ভূল ঠিকানা দিয়ে এসআই আমিনুল ইসলাম তাকে বিবাহ করে এবং ২০০৯ সালের ২৯ আগস্ট এক সন্তান জন্মলাভ করে। হাবিব আজমি আসিফ নামে যে সন্তান রয়েছে তার বর্তমান বয়স ৯ বছর। ২০১২ সালের পর থেকে তিনি আর ভোষণ পোষন দেয়া বন্ধ করে দেন। তিনি আমাকে প্রায় নির্যাতন এবং মারধর করতো।

বিয়ে করে ৬ বছর ধরে স্ত্রী সন্তানের খোঁজ নেননা পুলিশের এসআই আমিনুল

এর প্রতিকার চেয়ে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার বরাবর আবেদনপত্র দাখিল করি। চলতি বছরের ১৮ ফেব্রুয়ারী পুলিশ কমিশনার কার্যালয়ে জবানবন্দী শেষে ফেরার পথে রাজশাহী’র আদালত পাড়ায় এসআই আমিনুল ইসলাম স্থানীয় কয়েকজন মাস্তান দিয়ে জোরপূর্বক অভিযোগ প্রত্যাহার করার জন্য সাদা কাগজে স্বাক্ষর ও আমার সন্তানকে অপহরণের চেষ্টা করে। পরে আমি সাধারণ মানুষের সহযোগিতায় পালিয়ে আসতে সক্ষম হই।

তিনি বলেন, আমাকে হুমকি-ধামকি অব্যাহত রাখায় গত ২১ মার্চ সদর মডেল থানায় একটি জিডি করা হয়। বর্তমানে অন্যের বাড়ীতে কাজ করে সন্তান নিয়ে দুঃখ কষ্টে জীবনযাপন করছি। এমনকি আমার স্বামী আমিনুল ইসলাম মাস্তান দিয়ে সন্তান অপহরণের হুমকির কারণে সন্তানের নিরাপত্তার কথা ভেবে লেখাপড়া বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছি।

এ বিষয়ে আরএমপিতে কর্মরত এসআই আমিনুল ইসলামের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তার ব্যবহৃত দুটি মোবাইল ফোনের নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ