প্রবাসীর স্ত্রী নিয়ে কলেজ ছাত্র উধাও

0

ফেনীর দাগনভূইয়ার মাতুভূইয়া ইউনিয়নের আফ্রিকা প্রবাসি ইমাম হেসেন টুটুলের স্ত্রী ফাতেমা আক্তার সাথী পরকিয়া প্রেমের জের ধরে ঘর ছেড়েছে। মঙ্গলবার(৬মার্চ) সকালে ফেনী সরকারী কলেজে অনার্স পরিক্ষা দেওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হলে সে আর ঘরে ফেরেনি।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালের ২৬ জানুয়ারী দাগনভূইয়ার মাতুভূইয়া ইউনিয়নের মোমারিজপুর গ্রামের সৈয়দ আমিন বাড়ির খবির আহাম্মদের দক্ষিন আফ্রিকা প্রবাসি ছেলে ইমাম হোসেন টুটুলের সাথে নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার আহাম্মদপুর গ্রামের চাপরাশি বাড়ির নূরনবীর মেয়ে ফাতেমা আক্তার সাথীর সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হয়।

বিয়ের পর ফাতেমা তার পড়ালেখা চালিয়ে যাবে মর্মে ফেনী সরকারী কলেজে ভর্তি হয়। বিয়ের দুই মাস পর তার স্বামী টুটুল জীবিকার সন্ধানে আবার আফ্রিকায় চলে যায়। বছর খানেক পর থেকে সাথীর প্রতি তার স্বামীর সন্দেহ জাগে।

পরে সে গত ডিসেম্বর মাসে বাড়িতে আসে। এরপর সে জানতে পারে তার স্ত্রী সাথীর তার কলেজ বন্ধু ফেনী সরকারী কলেজ অর্থনীতি বিভাগের ছাত্র দাগনভূইয়া আলাইয়ারপুর গ্রামের হাছান আহাম্মদ দুলালের ছেলে তানবির মাহমুদের সাথে সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরবর্তীতে সে তার স্ত্রীকে অনেক বুঝানোর চেষ্টা করে। এতে টুটুল তাকে বুঝাতে ব্যর্থ হয়।

মঙ্গলবার (৬ মার্চ) টুটুলের শ্বশুর বাড়ি থেকে তার স্ত্রী অনার্স পরিক্ষা দেওয়ার জন্য কলেজে গেলে সে আর বাড়ি ফেরেনি। এব্যাপারে দাগনভূইয়া থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান, মেয়েটির বাবা ও স্বামী থানায় এসে বিষয়টি জানিয়েছে। তারা ধারনা করছে মেয়ে তানবির নামে ওই ছেলের সাথে পালিয়ে গেছে। তানবির দাগনভুইয়া পৌর ছাত্রলীগের অন্যতম নেতা।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ