সার্জেন্ট পেটালো ট্রাক শ্রমিকরা

0

রাজশাহীতে মহাসড়কে কাগজপত্র তল্লাশির নামে হয়রানির অভিযোগে পুলিশের এক সার্জেন্টকে পিটিয়েছে ট্রাক শ্রমিকরা। শুক্রবার বিকেলে মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের সামনে এ ঘটনার ঘটে। পরে শ্রমিকরা চাঁপাইনবাবগঞ্জ-ঢাকা বাইপাস সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। এ সময় তারা সার্জেন্ট রবিউল ইসলামকে প্রত্যাহারের দাবি জানান। পরে পুলিশ কর্মকর্তারা ও শ্রমিক নেতারা গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করলে অবরোধ সরিয়ে নেয়।

রাজশাহী মহানগর ট্রাফিক বিভাগের পরিদর্শক মোফাখ্খারুল আলম বলেন, বিকেল ৫ টার দিকে নগরীর আমচত্ত্বর হয়ে বাইপাস সড়ক দিয়ে নাটোরের দিকে যাচ্ছিল একটি ট্রাক। এসময় মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের সামনে ট্রাকের গতিরোধ করে সার্জেন্ট রবিউল ইসলাম কাগজপত্র দেখতে চান। কিন্তু চালক কাগজপত্র দেখাতে রাজি হননি। এ নিয়ে রবিউলের ওই চালকের বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে সার্জেন্ট রবিউল ট্রাক ড্রাইভার আবুল কালাম আজাদ ও কয়েকজন শ্রমিক লাঞ্ছিত করে।

ট্রাফিকের পরিদর্শক বলেন, এ ঘটনার পর তারা রাস্তার উপর এলোপাথাড়ি গাড়ি রেখে মহাসড়ক অবরোধ করেন। এ সময় তারা রবিউলকে প্রত্যাহারের দাবিতে বিভিন্ন শ্লোগান দেয়। এতে ওই মহাসড়কে প্রায় একঘণ্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। পরে পুলিশের কর্মকর্তা ও শ্রমিক নেতারা গিয়ে পরিস্থিত নিয়ন্ত্রণ করে অবরোধ সরিয়ে দেয়া হয় বলে জানান এই ট্রাফিক কর্মকর্তা মোফাখ্খারুল।

রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি কামাল হোসেন রবি বলেন, ট্রাক ড্রাইভার আবুল কালাম আজাদ একজন শ্রমিক নেতা। কাগজপত্র বের করতে দেরি হওয়ায় সার্জেন্ট রবিউল তাকে গালি দেন। এ নিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে ট্রাক চালক আমাকে ফোন করার জন্য মোবাইল বের করে। এ সময় সার্জেন্ট রবিউল মোবাইল কেড়ে নিয়ে সার্টের কলার ধরে ট্রাক থেকে টেনে হিচড়ে নামায়। এতে ক্ষুদ্ধ হয়ে শ্রমিকরা সার্জেন্ট রবিউলকে লাঞ্ছিত করে বলে জানান তিনি।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

ব্রেকিং নিউজঃ