পুলিশ সতর্ক করার পরেও থামেনি হাতি নিয়ে চাঁদাবাজি হাতি নিয়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে নতুন নতুন এলাকা

0

ডি এম কপোত নবী : হাতি দিয়ে টাকা আদায়ের বিষয়ে দৈনিক গৌড় বাংলা, চাঁপাইদ র্পণসহ অনলাইন নিউজ পোর্টালে প্রতিবেদন প্রচারের পরে সোমবার পুলিশ হাতির মালিক কে সতর্ক করে। যানবাহন কিংবা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে টাকা আদায় করবে নাবলে মৌখিক মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

কিন্তু তার পরেও থামেনি সে হাতি কেনিয়ে টাকা তোলা। মঙ্গলবার সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিজিবি ক্যাম্প এলাকা, নয়াগোলা মোড়, বালুগ্রাম মোড় হয়ে চাঁপাই-পলশা গোবরাতলা পর্যন্ত রাস্তারপাশের দোকান ও যানবাহন আটকিয়ে টাকা নিতে দেখা গেছে।

হাতিটিকে নিয়ে রাস্তার মধ্যখানে অটো রিক্সা আটকিয়ে টাকা নিতে দেখা গেছে। রেডিও মহানন্দার প্রতিবেদক জাহাঙ্গীর আলম সোহান জানান, মঙ্গলবার সকাল ১০ টার দিকে দেখি রাস্তার মধ্যে অটোরিক্সা আটকিয়ে টাকা তুলছে। ছোট বাচ্চা ওমহিলাদের কাছে হাতির শুড় দিয়ে ভয় দেখিয়ে তাড়াতাড়ি ভয়ে টাকা দিতে বাধ্য করা হচ্ছে। ছোট বাচ্চা এবং মহীলারা ভয়ে কান্নাকাটিও করতে গেখা গেছে।

সোহান আরো জানান, বাস, ট্রাক, অটো, রিকসা, সাইকেল, মটরসাইকেলসহ বিভিন্ন যানবহনে এক প্রকার জোর করেই চাঁদা আদায় করছে হাতিটির মালিক।

টাকার পরিমানটাও নির্ধারণ করছে হাতির উপর সুচ নিয়ে বসে থাকা ব্যক্তি। গ্রামের সাধারণ মানুষের ধারণা, হাতির কানের বাতাসে নাকি সব ধরনের অসুখ বিসুখ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। আর সেটাকেই পুজি করে ফাইদা লুটছে হাতিকেনিয়ন্ত্রণ করা সেই লোকটি। গুনেগুনে ৫০ টাকা না দিলে হাতির উপরে উঠা তোদূরের কথা, কানের বাতাসের আশেপাশেও যেতে পারবেন না। গ্রামের অসচেতন এসব মানুষ তবুও ৫০ টাকা দিয়েই লাইন ধরছে হাতির উপর উঠতে ও কানের বাতাস নিতে।

প্রতিবাদ করলে উল্টো সেই আবার হুমকি দিচ্ছেন। এ ব্যাপারে সরকারি তথ্য সহায়তা হেল্পলাইন ৩৩৩ তে কল দিলে জানান, এ ব্যাপারে তিনি আমাকে কোন তথ্য দিতে পারবেন না।

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার টিএম মোজাহিদুল ইসলাম বিপিএম  জানান,  সোমবার থানা থেকে হাতির মালিককে সতর্ক করা হয়েছিল। সাধারণ জণগনের ভোগান্তি হয় এমন কোন কাজ অবশ্যই আমরা প্রতিরোধ করব।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের মানুষের কাছে কেউ চাঁদাবাজি করলে সে যেই হোক তাকে আইনের আওতায় আনা হবে। তিনি আরো জানান, মাদক, অস্ত্র, চোরাকারবারীসহ যে কোন অপরাধের ব্যাপারে পুলিশ সর্বদা সজাগ রয়েছেন। আপনাদের বলব, যে কোন সমস্যার জন্য পুলিশকন্ট্রোল রুম অথবা এসপি অফিসে অথবা ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে অভিযোগ করলেই আমরা পদক্ষেপ নেব। আশা করছি হাতির ঘটনার ব্যাপারেও সমাধান হবে।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ