ভাইয়ের জন্য কাঁদলেন প্রধানমন্ত্রী

0

‘আমার দুই ভাই সেনাবাহিনীতে চাকরি করতেন। ছোট ভাইটি মাত্র ১০ বছর বয়সের। তাকে যদি জিজ্ঞেস করা হতো বড় হয়ে কী হবে? একটিই কথা ছিল, সেও সেনাবাহিনীতে যোগ দিবে। দুর্ভাগ্য ১৫ আগস্ট তারা সকলেই শাহাদাতবরণ করেছেন।’

রোববার (১৩ মে) ঢাকা সেনানিবাসে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় নিহত ভাইদের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে অশ্রু সংবরণ করতে পারেননি তিনি। বক্তব্যকালে তাকে বারবার চোখের জল মুছতে দেখা যায়।

এদিন ২০টি সমাপ্ত প্রকল্পসহ ২৭টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। পরে এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন তিনি।

শেখ কামাল ও শেখ জামালের সেনাবাহিনীতে যোগ দেওয়া ও স্বাধীনতা যুদ্ধে যোগদানের বিষয় উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, সেনাবাহিনীর সঙ্গে আমার পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে।

এই পরিবারের সদস্য হিসেবে সেনাবাহিনীর উন্নয়ন করা আমার কর্তব্য। স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রক্ষার ক্ষেত্রেও আমরা আরও বেশি উন্নত হব, সেই লক্ষ্য নিয়েই কাজ করি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সেনা সদস্যদের জন্য কল্যাণমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি। রসদ বাড়ানোর পাশাপাশি ভাতা বাড়িয়েছি। তাদের জন্য আবাসন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছি। প্রথমবারের মতো আমরা সেনাবাহিনী প্যারা কমান্ডো ইউনিট চালু করেছি। ‘৯৬ সালে মেয়েদের সেনা ও বিমানবাহিনীতে নিয়োগের ব্যবস্থা করি। নারী পাইলট সংযোজন করে নতুন যুগের সূচনা করি। সেনাবাহিনীর প্রশিক্ষণের জন্য কেন্দ্র করে দিয়েছি।

তিনি বলেন, সেনা সদস্যদের জন্য দুপুরে রুটির পরিবর্তে ভাতের ব্যবস্থা করে দিয়েছি। ‘৯৬ সালে সরকার গঠনের পর সেনাবাহিনীর কাছে তাদের দাবি-দাওয়া সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলাম। তারা বলেছিলেন, আমাদের দুপুরে রুটি দেয়া হয়, আমরা ভাত খেতে চাই। ওই সময় দেশে খাদ্য ঘাটতি ছিল। আমি কথা দিয়েছিলাম তাদের জন্য ভাতের ব্যবস্থা না করা পর্যন্ত আমি ভাত খাবো না। আমি ভাত খাইনি। তাদের জন্য ভাতের ব্যবস্থা করার পর আমি তাদের সঙ্গে বসে দুপুরের ভাত খেয়েছি।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, সেনা সদস্যের জন্য দুই লাখ টাকার দুস্থ ভাতা ৬ লাখ টাকা করে দিয়েছি। এলপিআর-এর মেয়াদ ছয় মাসের পরিবর্তে এক বছর করা হয়েছে। সেনাবাহিনীর জেসিও পদকে দ্বিতীয় থেকে প্রথম শ্রেণির করা হয়েছে। সার্জেন্টকে তৃতীয় থেকে দ্বিতীয় শ্রেণিতে উন্নীত করেছি।

এসময় সেনা সদস্যদের আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সম্মান ধরে রাখার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ