ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে এসআই বদলি

0

বরিশাল প্রতিনিধি: মাদক মামলার বিবাদীর কাছ থেকে ৩৯ হাজার টাকা ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে ঝালকাঠির নলছিটি থানা পুলিশের বহুল আলোচিত উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মিজানুর রহমানকে রেঞ্জ রিজার্ভ ফোর্সে (আরআরএফ) শাস্তিমূলক বদলি করা হয়েছে। বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি অফিস থেকে পাঠানো এ সংক্রান্ত এক আদেশে তার বদলির বিষয়টি জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার (১৭ মে) সকাল সাড়ে ৮টায় এসআই মিজানকে থানা থেকে কমান্ড সার্টিফিকেট (সিসি) প্রদান করা হয়েছে। দুপুরে নলছিটি থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল হালিম তালুকদার বদলির বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, মাদক মামলার চার্জশীট থেকে আসামীর নাম বাদ দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে অভিযুক্ত এসআই মিজান নলছিটি পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা শাহীন মল্লিকের স্ত্রী শারমীন বেগমের কাছে ৩৯ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন। শারমিন বেগম একাধিক সাক্ষীর উপস্থিতিতে দাবিকৃত ৩৯ হাজার টাকা দেওয়ার পরেও আসামীর (শারমীন বেগমের ছেলে) নাম বাদ না দিয়ে আদালতে চার্জশীট জমা দেন এসআই মিজানকে।

এ ঘটনায় বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি মো. শফিকুল ইসলামের কাছে গত ১২ এপ্রিল লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন শারমীন বেগম। অভিযোগ দায়েরের পর অতিরিক্ত ডিআইজি মো. আজাদ মিয়া ঘটনাস্থলে (নলছিটি) গিয়ে প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়দের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। এরপর পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হওয়ায় এসআই মিজানকে শাস্তিমূলক বদলি করা হয়।

বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি অফিস সূত্রে জানা গেছে, এসআই মিজানের বিরুদ্ধে তদন্ত চলমান রয়েছে। প্রাথমিক শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসেবে তাকে বদলি করা হয়েছে। তদন্ত শেষে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অভিযোগকারী শারমীন বেগম বলেন, ‘একটি সাজানো মিথ্যা মামলায় আমার ছেলে নাইম মল্লিককে জড়িয়েছে এসআই মিজান। সে নাইমের নাম চার্জশীট থেকে বাদ দেওয়ার কথা বলে আমার কাছ থেকে ৩৯ হাজার টাকা নিয়েছে। এরপরও ওই মিথ্যা মামলায় আমার নিরাপরাধ ছেলেকে ফাঁসানো হয়েছে। এ কারণে আমি ডিআইজি স্যারের কাছে অভিযোগ দিয়েছি।’

স্থানীয়দের অভিযোগ, গত ২০১৪ সালে মিজান সরকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) হিসেবে নলছিটি থানায় যোগদানের পর এলাকায় একাধিক ব্যক্তিকে হেনস্থা ও হয়রানি করেন। তার সঙ্গে এলাকার চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ী, জুয়াড়ী, ভূমিদস্যু চক্র, মোটরসাইকেল চোর সিন্ডিকেটসহ বিভিন্ন অপরাধী চক্রের সঙ্গে সখ্যতা রয়েছে।

এদিকে বিতর্কিত এসআই মিজানের শাস্তিমূলক বদলির খবরে নলছিটির মানুষের মনে স্বস্তি ফিরে এসেছে। অনেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজিসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ