দেশে কি আইন বা আদালত নেই: এরশাদ

0

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, মাদক নির্মূলের নামে যাদের হত্যা করছেন তারা এদেশের নাগরিক। মানুষ মারার অধিকার আপনাদের কে দিয়েছে? দেশে কি আইন বা আদালত নেই।

শনিবার (২৬ মে) রাজধানীর বিজয়নগরে একটি হোটেলে জাতীয় ইসলামী মহাজোট আয়োজিত আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এরশাদ বলেন, দেশে কি যুদ্ধ শুরু হয়েছে যে এভাবে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মানুষ হত্যা করা হচ্ছে। যাদের হত্যা করা হচ্ছে তারা কি এদেশে জন্ম নেয় নাই? তাদের কি বিচার পাওয়ার অধিকার নেই।

তিনি বলেন, রমজান শান্তি ও সংযমের মাস। কিন্তু আমরা কেউ শান্তি ও স্বস্তিতে নেই। আগামীকাল কে বন্দুকযুদ্ধের শিকার হবো আমরা কেউ জানি না। রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের কথা বললেও পারেননি।

এরশাদ বলেন, শেখ হাসিনা ভারত থেকে আমাদের জন্য কি এনেছেন? আমরা জানি না, জানতে চাই। তিস্তার কোনো সমাধান কি করতে পেরেছেন? আশা করি, উনি এ বিষয়ে সুস্পষ্ট বক্তব্য রাখবেন।

রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে জাপা চেয়ারম্যান বলেন, রোহিঙ্গাদের দেখতে অনেকে যাচ্ছে। অনেক প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে কিন্তু তাদের প্রতিশ্রুতির কোনো মূল্য নেই। নোম্যান্স ল্যান্ডে দুর্বিষহ জীবন-যাপন করছে সাড়ে চার লাখ রোহিঙ্গা। তাদের বাংলাদেশে নিয়ে আসুন। ১০ লাখ রোহিঙ্গাকে খাওয়াতে পারলে আরও চার লাখ মানুষকেও খাওয়াতে পারবেন।

তিনি আরও বলেন, ইসলামী রাষ্ট্রগুলো আজ বিচ্ছিন্ন। কারও সঙ্গে কারো মিল নেই। ফিলিস্তিনিসহ অনেক মুসলিম রাষ্ট্র আজ নিগৃহীত। তাদের পক্ষে বলার কেউ নাই। মুসলমান রাষ্ট্রগুলো নীরব। ফিলিস্তিনিরা নিজ দেশেই আজ ইসরাইলিদের দ্বারা হত্যার শিকার হচ্ছে, বিশ্ব বিবেক নীরব।

এইচ এম এরশাদ বলেন, দেশেও আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ নই। সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকলে এদেশে কেউ ইসলাম বিনষ্ট করার সাহস পাবে না। সব ইসলামী দলের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আসুন সব ইসলামীদল একত্রিত হয়ে নির্বাচন অংশ নেই। যাতে আমরা ইসলামের সেবা করতে পারি।

ইসলামী মহাজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবু নাসের এয়াহেদ ফারুকের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, সুনীল শুভ রায়, রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, জোটনেতা মীর আবু তৈয়ব মো. রেজাউল করিম, মাওলানা আলফাত চৌধুরী, আবুল হাসনাত, ইসহাক ভূঁইয়া প্রমুখ।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ