ইরানি ঝলকে বাকরুদ্ধ রাশিয়া

0

প্রথম ম্যাচে মরক্কো-কে হারিয়েই চমক৷ বিশ্বকাপে এমন শুরুটা হবে তা স্বপ্নেও ভাবেননি ইরানিরা৷ ফলে জয়ের খবরে রাতভর তেহরান সহ দেশের সর্বত্র পালিত হয়েছিল উৎসব৷ এবার দ্বিতীয় ম্যাচের আগে থেকেই উত্তেজনা চরমে৷ এবার প্রতিপক্ষ প্রাক্তন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ও প্রবল শক্তিশালী স্পেন৷ সেই দুরন্ত স্প্যানিশ ছন্দের সঙ্গে সমানে টক্কর দিতে প্রস্তুত ইরান৷

 

বিশ্বকাপে অঘটনের পর্ব চলছেই৷ সেই ধারা বজায় রাখবে ইরান৷ এমনই মনে করছেন দেশটির সমর্থকরা৷ তবে ইরানিদের ফুটবল সমর্থকদের রকম সকমে চমক লেগেছে রুশদেশে৷ বিভিন্ন রঙের সমাহার অতিথিদের পোশাকে৷ হিজাবে ঢাকা নয়, বরং খোলা হাওয়ার বার্তা দিচ্ছেন ইরানের ফুটবল ফ্যানরা৷ ইসলামি বিপ্লবের পর তৈরি হওয়া নতুন ইরানে সামাজিক অগ্রগতি বারে বারে আলোচ্য হয়েছে৷ তবে কয়েকটি ক্ষেত্রে আরও কয়েকটি ইসলামি দেশের মতো কিছু বিধিনিষেধ রয়েছে এই দেশে৷ রুশ বিশ্বকাপে আসা ইরানিরা অবশ্য সেসব ভেঙে ফেলেছেন৷

 

ইরানের বিশ্বকাপ অভিযান নিয়ে বিতর্ক ছিল প্রথম থেকেই৷ পরমাণু চুক্তি ভেঙে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কড়া বার্তায় নাইকি সরাসরি ইরানের বুট স্পনসর করা থেকে সরে আসে৷ অথচ অন্যান্য দলগুলিতে যথারীতি নাইকি তাদের বুট দিয়েছে৷ এবার নাইকি বিহীন দল হিসেবেই প্রথম ম্যাচটি মরক্কোর সঙ্গে খেলে ইরান৷ দেশের সর্বোচ্চ ধর্মীয় শাসক আয়াতুল্লা আলি খামেনেই বারে বারে মার্কিন অবস্থানের সমালোচনা করেছেন৷ তারই মাঝে বিশ্বকাপে বুট বিতর্ক আরও উত্তপ্ত পরিস্থিতি তৈরি করে দেয়৷ ফলে ইরানি সমর্থকরাও ক্ষুব্ধ৷ কিন্তু দল জয় দিয়ে অভিযান শুরু করায় তাদের উল্লাস চাপা থাকেনি৷

  • ১৯৭৮ সালে প্রথমবার বিশ্বকাপের আসরে প্রবেশ করেছিল ইরান৷ মোটা পাঁচবার অংশ নিয়েছে দেশ৷ কিন্তু কোনওবারই প্রথম রাউন্ড পার করা সম্ভব হয়নি ইরানিদের৷ এবারের লড়াই আরো জমিয়ে দিতে প্রস্তুত ইরান৷ তবে ইরানি ফ্যানেরা ইতিমধ্যেই আসর জমিয়ে দিয়েছেন ৷
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ