ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমার হালচাল

0

বাংলা সিনেমা সংশ্লিষ্টদের জন্য ঈদ একটি দারুণ উপলক্ষ্য। এবার ঈদের দিন দেশে মু্ক্তি পেয়েছে ৫টি নতুন চলচ্চিত্র। তবে বিশ্বকাপ ফুটবল শুরু হওয়ায় অনেকেই মনে করছেন ঈদে কমই হলমুখী হচ্ছেন দর্শকরা।

অনেকে বলছেন, আমাদের দেশের মতো ছোট ইন্ডাস্ট্রিতে একসঙ্গে ৫টি সিনেমা মুক্তি পাওয়া মোটেও শুভ লক্ষণ নয়।

এবারের ঈদে মুক্তি পাওয়া ৫টি সিনেমা হলো, ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া, নোয়াখাইল্লা মাইয়া’, ‘পোড়ামন ২’, ‘সুপার হিরো’, ‘পাঙ্কু জামাই’, ও ‘কমলা রকেট’। কেমন চলছে এবারের ঈদ সিনেমা মৌসুম? একটু জানার চেষ্টা করবো।

চিটাগাইঙ্গা পোয়া, নোয়াখাইল্লা মাইয়া: – উত্তম আকাশ পরিচালিত এই সিনেমাটিতে জুটি বেঁধেছেন আলোচিত জুটি শাকিব-বুবলি। কমেডি ধাচের সিনেমাটি মুক্তির জন্য প্রস্তুত ছিলো ঈদের বেশ আগে থেকেই। ১৩৫ টি হলে দর্শক দেখতে পাচ্ছেন ছবিটি। অনেকেই বলছেন এবারের ঈদে সবচেয়ে বেশি আগ্রহ লক্ষ্য করা গেছে এ ছবিটিকে কেন্দ্র করে।

পোড়ামন ২: – রায়হান রাফি পরিচালিত জাজের ছবি পোড়ামন নিয়েই এবারের ঈদে আলোচনাটি ছিল সবচেয়ে বেশি। এতে জুটি বেঁধেছেন নবাগত সিয়াম ও কিশোরি নায়িকা পূজা চেরি। কিন্তু অনেক বেশি আলোচনা হলেও ছবিটি মুক্তি পেয়েছে মাত্র ২২টি হলে। তবে ২২টি হলে মুক্তি পেলেও ছবিটি নিয়ে দর্শকদের আগ্রহ লক্ষ্য করা গেছে।

সুপার হিরো: নির্মাতা আশিকুর রহমানের ছবি সুপার হিরো। এ ছবিতেও জুটিবন্ধ হয়েছেন শাকিব-বুবলি। অ্যাকশনধর্মী এ সিনেমাটি নিয়ে অনেক আলোচনা থাকলেও এটি সেন্সর থেকে ছাড়পত্র পায় সম্প্রতি। ফলে সিনেমাটি নিয়ে মুক্তির আগে তেমন প্রচারণা দেখা যায়নি। কিন্তু তারপরও ৭৭টি হলে প্রদর্শিত হচ্ছে ছবিটি। ছবিটির দর্শক সংখ্যাও নেহায়েত কম নয়।

পাঙ্কু জামাই: শাকিব-অপু অভিনীত এ ছবিটি মুক্তি পেয়েছে ৭০টি হলে। তবে ঈদে ছবিটির মুক্তি নিয়ে শাকিবের আপত্তি থাকলেও নির্মাতা আব্দুল মান্নান ঈদেই ছবিটি মুক্তি দিয়েছেন। বিবাহ ও বিচ্ছেদসহ সাম্প্রতিক সময়ের শাকিব-অপুর ব্যক্তিগত সম্পর্ক তলানিতে।

আর এ কারণে শাকিব ও অপু ভক্তরা ছবিটি দর্শক গ্রহণ করবে এবং এক সময়ের অপ্রতিদ্বন্দী এ জুটিকে স্বরণ করবে, এমন একটি ধারণা সিনেমা বাজারে থাকলেও, ছবিটি নিয়ে এখনো পর্যন্ত তেমন আলোচনা চোখে পড়েনি।

কমলা রকেট: ইমরান মিঠু পরিচালিত এ ছবিতে অভিনয় করেছেন তৌকির আহমেদ, মোশাররফ করিম, সামিয়া সাইদসহ অন্যান্য শিল্পী। সারাদেশে মাত্র ৩টি হলে মুক্তি পেয়েছে ছবিটি। এ ছবিটি সম্পর্কে তেমন কোন মতামত পাওয়া যায়নি।

ছবিগুলোর মধ্যে আগে থেকে আলোচনায় রয়েছে ‘পোড়ামন ২’ ও ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া, নোয়াখাইল্লা মাইয়া’। ঢাকার বেশ কয়েকটি প্রেক্ষাগৃহ ঘুরে দুইটি ছবিরই ভালো দর্শক দেখা গেছে। তবে, অন্য ছবিগুলো সম্পর্কেও দর্শক মোটামুটি ইতিবাচক তথ্যই দিচ্ছেন।

 

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ