বাংলাদেশের সঙ্গে খেলবে মেসিরা!

0

আর্জেন্টাইনরা বাংলাদেশকে চিনে ম্যারাডোনার সাড়া জাগানো আত্মজীবনী ‘এল দিয়েগো’ বই এর মাধ্যমে । সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে ম্যারাডোনাকে যখন ১৯৯৪ আগে দিয়ে নিষিদ্ধ করা হলো এই সংবাদে বাংলাদেশি এক নাগরিক আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। পরে নাকি সেটা গন-আত্মহত্যায় রুপ নিয়েছিল।

বাংলাদেশে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা দলের সমর্থক বেশি। তবে আর্জেন্টিনা সমর্থকরা একটু পাগল ধরনের। এমন ভাবে আর্জেন্টিনা দলকে ভালবাসে এবং মেসিদের জন্য এমন অদ্ভুত সব কর্মকাণ্ড করে বসে যা দেখে অনেকেই অবাক হয়। এতসব পাগলামি ভালবাসার কথা আর্জেন্টিনা অনেক আগে থেকেই জানে।

কিছুদিন আগে ব্রাজিলের তিনজন সাংবাদিক বাংলাদেশ এসে ঘুরে গিয়েছে। তাঁরা ব্রাজিলের পাশাপাশি আর্জেন্টিনার প্রতি ভালবাসা দেখে মুগ্ধ হয়েছে। বাংলাদেশ মানুষের আর্জেন্টিনা দলের জন্য ভালবাসা দেখে তাঁরা চমকপ্রদ একটি কাজ করে ফেলেছেন। সেটা হচ্ছে আর্জেন্টিনা বোর্ডের কাছে একটি পিটিশন করে ফেলেছে তাঁরা।

পিটিশনে উল্লেখ রয়েছে, আর্জেন্টিনার মেসি-মাসচেরানো একবার হলেও যেন বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সঙ্গে একটি প্রীতি ম্যাচ খেলতে বাংলাদেশে আসেন।

পিটিশনটিতে ২ হাজার ৫০০ জন মানুষের সই নেওয়া হবে। তারপর নাকি আর্জেন্টিনা বোর্ডের কাছে পিটিশনটি তুলে দেয়া হবে। বোর্ডের প্রধান ক্লদিও তাপিয়াকে অনুরোধ জানানো হবে, বাংলাদেশের সঙ্গে যেন আর্জেন্টিনার একটি প্রীতি ম্যাচ খেলে। খবরে জানা গিয়েছে পিটিশনে এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৮০০ জন এরই মধ্যে সই দিয়ে ফেলেছেন।

ইতিমধ্যে ‘মুন্দো আলবিসেলেস্তে’, ‘ক্লারিন’, ‘লা নাসিওনে’র মতো আর্জেন্টিনার বড় বড় সংবাদপত্র  বাংলাদেশের মানুষের আর্জেন্টিনা দলের জন্য ভালবাসা দেখে কয়েকটা প্রতিবেদন করেছে। সেই প্রতিবেদনে উঠে এসেছে বাংলাদেশের মানুষ মেসিদের কতো ভালোবাসে। সেটা জেনে আর্জেন্টিনার নাগরিকরা রীতিমত মুগ্ধ।

২০১১ সালে আর্জেন্টিনা বাংলাদেশে এলেও বাংলাদেশ ফুটবল দলের সঙ্গে কোন ম্যাচ খেলেনি। একটি প্রীতি ম্যাচে বাংলাদেশ এসে আর্জেন্টিনা ও নাইজেরিয়া একে অপরের সঙ্গে মুখোমুখি হয়।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ