আমার পায়ের শব্দ!

আমার পায়ের শব্দ! রাজিয়া সুলতানা তুমি কি শুনতে পাও আমার পায়ের শব্দ!  তোমার কি মনে পড়ে দরজার পাশে ,  চৌকিতে বসে তোমাকে দেখার সেই শুভক্ষণ? মিথ্যে করে হলেও বল ‘ তোমায় দিয়েছি এই মন তুমি কি শুনতে পাও আমার ক্রন্দন না পাওয়ার ব্যাকুল আর্তনাদ , ভালোবেসে বরন করতে হল এ কোন মরন ফাদঁ। আচ্ছা? আমাদের বাড়ীর পাশের বাড়ীর ঐ যে যাকে নিয়োগ দিয়েছি রানার পদে। ও এতক্ষনে মনে পড়ল তাহলে, সে কি বলল জান! তুমি নাকি এখন আর আমার পথ চেয়ে বসে থাকনা, হাটু ঘিরে বসে মাটির বুক চিরে আমার…

Read More

শ্রাবণের শেষ বিকেলের ঝিরি ঝিরি বৃষ্টি

মাঝে মাঝে দমকা হাওয়া কি যে অপরূপ সৃষ্টি।। খোলা বাতায়নে দাঁড়িয়ে জাগে কি যে শিহরণ —— তপ্ত চায়ের কাপে চুমুকে পুলকিত হয় মন।। সারাদিন টিপ টিপ ঝরিছে বরিষন ——– কি যে অপরূপ সেজেছে সাঁঝ বেলার শ্রাবণ।। “” শুভ শ্রাবণ সন্ধ্যা “” এ্যাড. সৈয়দ শাহজামাল Please follow and like us:

Read More

যৌবন রে, তুই কি রবি সুখের খাঁচাতে

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর—বলাকা যৌবন রে, তুই কি রবি সুখের খাঁচাতে। তুই যে পারিস কাঁটাগাছের উচ্চ ডালের ‘পরে পুচ্ছ নাচাতে। তুই পথহীন সাগরপারের পান্থ, তোর ডানা যে অশান্ত অক্লান্ত, অজানা তোর বাসার সন্ধানে রে অবাধ যে তোর ধাওয়া; ঝড়ের থেকে বজ্রকে নেয় কেড়ে তোর যে দাবিদাওয়া। যৌবন রে, তুই কি কাঙাল, আয়ুর ভিখারী। মরণ-বনের অন্ধকারে গহন কাঁটাপথে তুই যে শিকারি। মৃত্যু যে তার পাত্রে বহন করে অমৃতরস নিত্য তোমার তরে; বসে আছে মানিনী তোর প্রিয়া মরণ-ঘোমটা টানি। সেই আবরণ দেখ্‌ রে উতারিয়া মুগ্ধ সে মুখখানি। যৌবন রে, রয়েছ কোন্‌ তানের সাধনে। তোমার…

Read More

এমন ভেঙ্গে চুরে ভালো কেউ বাসেনি আগে

লিখেছেন-তসলিমা নাসরিন কী হচ্ছে আমার এসব! যেন তুমি ছাড়া জগতে কোনও মানুষ নেই, কোনও কবি নেই, কোনও পুরুষ নেই, কোনও প্রেমিক নেই, কোনও হৃদয় নেই! আমার বুঝি খুব মন বসছে সংসারকাজে? বুঝি মন বসছে লেখায় পড়ায়? আমার বুঝি ইচ্ছে হচ্ছে হাজারটা পড়ে থাকা কাজগুলোর দিকে তাকাতে? সভা সমিতিতে যেতে? অনেক হয়েছে ওসব, এবার অন্য কিছু হোক, অন্য কিছুতে মন পড়ে থাক, অন্য কিছু অমল আনন্দ দিক। মন নিয়েই যত ঝামেলা আসলে, মন কোনও একটা জায়গায় পড়ে রইলো তো পড়েই রইল। মনটাকে নিয়ে অন্য কোথাও বসন্তের রঙের মত যে ছিটিয়ে দেব,…

Read More

দৈনিক দুঃখ

এই ব্যাথার স্রোতটা যে বিনাশী মহাপ্রলয় তা যদি সে জানতো; কিভাবে ভেসে যাচ্ছে আবাস কিভাবে ডুবে যাচ্ছে প্রাণ নিমজ্জিত আমি কিভাবে আছি সে সব যদি সে জানতো। সুনসান শ্মশানের মত বুকের ভিতর তীক্ষ্ম ঝড়ে টিকে থাকা পাখির আবাস ছিল ভরা নদীর অথৈ সুখ, ঊষাকাল মুখরিত গান ছিলো সব অবারিত তৃষ্ণা ছিলো একটু দরদী ছোঁয়ার ক্ষুধা। তবু আজ কিছু নেই আর মুমূর্ষ সময় গিলেছে সব ঔষধী সুখ। এখানে শুধু পড়ে আছে মরা নদীর চর তপ্ত বালিতে শীর্ণকায় আশা চেয়ে আছে দুঃখের শকুন অবিশ্রান্ত চোখে মহামারী দুর্ভিক্ষের উল্লোসিত চোখে। এখানে শুধু দৈনিক…

Read More

কবর

শেখ মো. জাকির হোসেন- এখানে কোন সাবমেরিন কেবল নেই, কোন ওয়াই ফাই সংযোগও নেই, ইথারে কোন কণ্ঠ ভেসে আসবে না- বার্তা বিনিময়ের কোন সুযোগ নেই! তবে আছে বার্তা প্রেরণের একমুখী পথ, প্রেরক থাকবে দাঁড়িয়ে, আনত আননে। প্রাপক নিদ্রিত, অসাড়, অন্তিম শয়নে অসাড় দেহেও সে রবে জাগ্রত মননে। প্রাপক শুধু বুঝে নিবে বার্তার সার কথা, ভালবাসার যেসব কথা প্রার্থনা হয়ে যায়, নীরব উচ্চারণে, একান্ত হৃদয়ের টানে- পবিত্রতায়, ভালবাসায়, অপার মায়ায়! Please follow and like us:

Read More